বাড়িতে বসেই পেতে পারেন বাংলাদেশের খাঁটি ইলিশ মাছ! জানুন কীভাবে

50
বাড়িতে বসেই পেতে পারেন বাংলাদেশের খাঁটি ইলিশ মাছ! জানুন কীভাবে

ইতিমধ্যে বাংলাদেশ থেকে ইলিশ আসতে শুরু করে দিয়েছে আমাদের ভারতবর্ষে। যদি এখনও পর্যন্ত খবর না জেনে থাকেন তাহলে এখনি জেনে নিন, হাতছাড়া হবার আগে একবার বাজার ভ্রমণ করে আসুন। চলতি মরসুমে এখনও পর্যন্ত সেই ভাবে ইলিশ মাছ ভক্ষণ করার সৌভাগ্য হয়নি বাঙ্গালীদের। মৎস্যজীবীরা বারবার ট্রলার নিয়ে মাছ ধরতে গেলে ফিরে আসতে হয়েছে খালি হাতে। তাই এমতাবস্থায় যখন রাজ্যে বসেই পাওয়া যাচ্ছে ভিন রাজ্যের ইলিশ মাছ, তখন আর দেরি করে লাভ নেই।

এবার নিশ্চয়ই জানতে ইচ্ছা করছে, ভিন রাজ্যের ইলিশ মাছ কত টাকার বিনিময়ে আপনি কুক্ষিগত করতে পারবেন? তাহলে জেনে নিন, মাত্র দেড় হাজার থেকে দুই হাজার টাকার বিনিময়ে আপনি এই ইলিশ মাছ নিজের বাড়িতে আনতে পারবেন খুব সহজেই। বাড়িতে বসেই পেয়ে যাবেন খাঁটি বাংলাদেশের খাঁটি ইলিশ মাছ।

টাকার অংক যদি আপনার বেশি লেগে থাকে তাহলে আপনি আপনার মত কাউকে বেছে নিতে পারেন এবং দুজনে মিলে কিনে নিতে পারেন এক কেজি ইলিশ মাছ। এরপর সেটিকে আধাআধি কেটে বাড়ি নিয়ে চলে যেতে পারেন এবং আমেজ করে খেতে পারেন সেগুলি।

ইলিশ মাছ গুলি বাংলাদেশ থেকে দক্ষিণ দিনাজপুরের হিলি সীমান্ত দিয়ে ঢুকে গঙ্গারামপুর, হিলি, বালুর্ঘট, হরিরামপুর সহ আশেপাশের এলাকা দিয়ে ঢুকিয়ে আমাদের ভারতবর্ষে দেদার বিক্রি হচ্ছে। মালদা এবং উত্তর দিনাজপুর থেকে অনেকেই ছুটে যাচ্ছেন এই ইলিশ মাছ কেনার জন্য।

হিলি সীমান্তে বিএসএফের নজরদারির আড়ালে চোরাকারবারীরা পদ্মার ইলিশ বাংলাদেশ থেকে এই দেশে নিয়ে এসে গোডাউনে মজুদ করে রাখে এবং ভারতবর্ষে বিক্রি করে চড়া দামে। তবে এই বছর ইলিশ ধরতে অনেক দেরি হয়ে যাওয়ায় মাছ পাওয়া যাচ্ছিল না সেইভাবে। অবশেষে তিন চারদিন ধরে বাঁকা পথে ইলিশ মাছ নিয়ে এসে সাধারণ মানুষের রসনা তৃপ্তি করাচ্ছেন চোরাকারবারীরা।

খোলা বাজারে গেলে সব সময় আপনি এই ইলিশ মাছ দেখতে পাবেন না। নির্ধারিত জায়গায় এবং নির্ধারিত সময় আপনাকে যেতে হবে এই ইলিশ মাছ পাওয়ার জন্য। কলকাতায় বসে যদি আপনি এই ইলিশ মাছের স্বাদ পেতে চান তাহলে আপনার পকেটে থাকতে হবে দালালদের নম্বর। এই নম্বর আপনি জোগাড় করতে পারলেই আপনি বাড়িতে বসে পেয়ে যাবেন একেবারে পদ্মার তাজা ইলিশ।