মহিলাদের বেঁচে দেওয়া হচ্ছে আফগানিস্তানে! বিশ্ব নেতাদের হস্তক্ষেপের আর্জি জানালেন রিয়া চক্রবর্তী

12
মহিলাদের বেঁচে দেওয়া হচ্ছে আফগানিস্তানে! বিশ্ব নেতাদের হস্তক্ষেপের আর্জি জানালেন রিয়া চক্রবর্তী

মাত্র দুদিন হলো, আফগানিস্তানের দখল নিয়েছে তালিবানরা। এরই মাঝে বিশৃংখল পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়ে গিয়েছে সেই দেশে। মহিলাদের স্বাধীনতা? সে আবার কি? মহিলারা আদতে তালিবানদের কাছে মানুষ নন। তাই তাদের কোনো স্বাধীনতাই থাকতে নেই। এমন এক বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে যে সেই দেশের মানুষ প্রাণের মায়া ত্যাগ করেও দেশ থেকে পালানোর চেষ্টা করছেন। উড়ন্ত বিমানের চাকা ধরে ঝুলছেন, শুধুমাত্র তালিবানদের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য!

এমন ভয়ঙ্কর দৃশ্য দেখে চুপ থাকতে পারলেন না বলিউড অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী। আফগানিস্তানের সাধারণ মানুষ বিশেষত মহিলাদের পরিস্থিতি তাকে ভাবিয়ে তুলেছে। তাই বিশ্ব নেতাদের কাছে তিনি আবেদন জানিয়েছেন, এই পরিস্থিতিতে মহিলাদের পাশে দাঁড়ানোর। নিজের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে রিয়া লিখেছেন, সারা বিশ্ব যখন মহিলাদের সমান বেতনের লড়াই লড়ছে, আফগানিস্তানের তখন মহিলাদের বেচে দেওয়া হচ্ছে! মহিলারাই এখন সেখানে বেতন হয়ে গিয়েছেন।

প্রতিবেশী রাষ্ট্রের এমন দুর্দশা দেখে বিশ্ব নেতাদের কাছে রিয়ার আবেদন, আফগানিস্তানের মহিলা এবং সংখ্যালঘুদের অবস্থা শোচনীয়। তাই বিশ্ব নেতাদের উচিত তাদের পাশে দাঁড়ানো। কারণ মহিলারাও মানুষ। এই দুই দিনের মধ্যে মহিলাদের পুরুষ সঙ্গী ছাড়া বাইরে বেরোনো নিষিদ্ধ করে দিয়েছে তালিবানি শাসকেরা। বিবাহিত মহিলাদের খুঁজে বের করা হচ্ছে। প্রথমে তাদের বিয়ের প্রস্তাব দেওয়া হচ্ছে। সেই প্রস্তাবে রাজি না হলে তাদের তুলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে!

আফগানিস্তানের এই পরিস্থিতি ভাবিয়ে তুলেছে সারা বিশ্বকে। দেশ ছেড়ে পালাতে গিয়ে বিমানেও হুড়োহুড়ি পড়ে গিয়েছে। এমনকি বিমানের মধ্যে জায়গা না পেয়ে বিমানের চাকা ধরে ঝুলতে ঝুলতে নিজের দেশ থেকে অন্য দেশে পালাতে গিয়ে মাটিতে পড়ে মৃত্যু হয়েছে ২ জনের! ঘটনা দেখে শিউরে উঠছেন বিশ্ববাসী। পরিস্থিতি আরও শোচনীয় হয়ে ওঠার আগেই ব্যবস্থা নিন বিশ্বনেতারা। আবেদন রিয়া চক্রবর্তীর।