মুকেশ আম্বানির জামাই পরিচয় দিয়ে সিআইডির কাছে জেড প্লাস নিরাপত্তা দাবী এই ব্যক্তির

27
মুকেশ আম্বানির জামাই পরিচয় দিয়ে সিআইডির কাছে জেড প্লাস নিরাপত্তা দাবী এই ব্যক্তির

অনেক সময় আমরা এমন অনেক ঘটনার চোখের সামনে দেখতে পাই যা খুবই ভীষণভাবে অপ্রস্তুত অবস্থার সৃষ্টি করে। এই সমস্ত ঘটনা আমরা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে শুনতে পাই। এই খবর শুনলে যেমন আমরা অবাক হই যেমন হয় বিস্মিত। তেমনই একজন ব্যক্তি হঠাৎ করে নিজেকে মুকেশ আম্বানির জামাই বলে দাবি করে এবং সিআইডির কাছে জেড প্লাস ক্যাটাগরির সুরক্ষা চেয়ে বসেন।

ব্যক্তির নাম রবিশ্যাম ত্রিবেদী। বিন্ধ্যাচলের ডিআইজি অফিসে গিয়ে তিনি দাবি করেন, তার সঙ্গে কিছুদিনের মধ্যেই বিবাহ হতে চলেছেন মুকেশ আম্বানি কন্যার। মুকেশ আম্বানি নাকি তাকে হাজার হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করার কথা জানিয়েছেন। সেই কারণেই তিনি মির্জাপুরে এলাকা দেখতে এসেছেন।

ওই ব্যক্তির দাবি অনুযায়ী, তিনি বিমানবন্দর, গ্রীন এনার্জি, এফএম রেডিওতে বিনিয়োগ করছেন। তার কথা শুনেই ডিআইজি কে ভরদ্বাজ বুঝতে পারেন, ওই ব্যক্তি মানসিকভাবে স্থিতিশীল নয়, কারণ তার চলাফেরা একেবারেই স্বাভাবিক নয়। ওই ব্যক্তির কথা শুনে তাকে বুঝিয়ে সুজিয়ে বাড়ি ফেরত পাঠানোর চেষ্টা করেন ডিআইজি।

উক্ত ব্যক্তির দাবি অনুযায়ী, তার উপর মারাত্মক হামলা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে অদূর ভবিষ্যতে এবং তাই তিনি জেড প্লাস ক্যাটাগরির নিরাপত্তা চাইছেন। পুলিশ এই ব্যাপারে যদিও কোনো পদক্ষেপ নেননি। এই ঘটনার পর সংবাদমাধ্যমের সামনে ওই ব্যক্তি আরো একবার জানান, সত্যিই তিনি মুকেশ আম্বানির জামাতা হতে চলেছেন। বিশ্বাস না হলে মুকেশ আম্বানি কে ফোন করে নিক সকলে। কিন্তু মুকেশ আম্বানি তাকে ফোন বন্ধ করতে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।

শুধু তাই নয়, আম্বানি পরিবারের সকলের নাম একের পর এক বলে চলেছেন তিনি। রাকেশ ভাটিয়া, প্রিয়া ভাটিয়া, মুকেশ আম্বানি এবং নীতা আম্বানির নাম উচ্চারণ করতে শোনা গেছে তাকে। তিনি তার ফোন হারিয়ে ফেলেছেন, তাই তিনি আপাতত ছোট ফোন ব্যবহার করছেন। আগামী দিনে সকলেই বুঝতে পারবেন, তিনি সত্যি কথা বলছেন। তিনি আসলে কে।