দীর্ঘ 11 বছর শ্বশুর বাড়িতে যেতে আপত্তি করেছেন স্ত্রী! জানুন কারন

5
দীর্ঘ 11 বছর শ্বশুর বাড়িতে যেতে আপত্তি করেছেন স্ত্রী! জানুন কারন

আমরা জানি শুভ কোন কাজ করতে হলে শুভ দিনক্ষণ মেনে কাজ করাটাই শ্রেয়। কিন্তু তাই বলে নিজের বাপের বাড়ি থেকে শ্বশুর বাড়ি যাওয়ার জন্য যদি সঠিক দিনক্ষণ মানা হয় আবার তাও যদি সেই শুভ দিনক্ষণের অপেক্ষা করতে করতে দীর্ঘ 11 বছর পেরিয়ে যায় তাহলে সেটাকে কি বলবেন? এমন ঘটনাই ঘটেছে ছত্রিশগড়ের এক ব্যক্তির সাথে।

শুভ সময় না আসার কারণে দীর্ঘ 11 বছর শ্বশুর বাড়িতে যেতে আপত্তি করেছেন স্ত্রী, সেই কারণেই স্বামী দ্বারস্থ হয়েছে আদালতের। সমস্ত কথা শুনে এবং মামলার ওপর ভিত্তি করে বিচারপতি এই মামলাটিকে পরিতক্ত বলে ঘোষণা করেছেন ও সাথে বিবাহ বিচ্ছেদের নির্দেশ দিয়েছেন। ছত্রিশগড়ের সেই ব্যক্তি এর আগেও পারিবারিক আদালতে বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন করেছিলেন, কারণ হিসেবে 11 বছর ধরে স্ত্রী তার বাপের বাড়িতে থাকার কথা জানিয়েছিলেন। কিন্তু, বিবাহ-বিচ্ছেদের নির্দেশ দিতে মঞ্জুর হয়নি সেই আদালত। আর সেই কারণেই হাইকোর্টে বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন করেন সন্তোষ নামের সেই ব্যক্তি।

পিটিশনের মাধ্যমে তিনি জানায়, 2010 সালে বিয়ে হওয়ার পর স্ত্রীর সাথে মাত্র 11 দিন ছিলেন তিনি, আর ঠিক তার পরেই দীর্ঘ 11 বছরের জন্য বাপের বাড়ি চলে যায় তার স্ত্রী। তবে এই বিষয় নিয়ে মহিলা জানিয়েছে, আমি আমার স্বামীকে ছেড়ে দেই নি, আমি কেবল মাত্র সঠিক রীতিনীতির পালন। আমার স্বামী আমাকে শুভ সময়ে নিতে আসেনি তাই আমার আর যাওয়া হয়নি।

কিন্তু এখানে সেই ব্যক্তির জয় হয়েছে, হাইকোর্ট বিবাহ বিচ্ছেদের আবেদন মঞ্জুর করেছে ও হিন্দু বিবাহের আইনের ধারা 13 আইবি হিসেবে বিবাহ বিচ্ছেদের নির্দেশ দিয়েছেন। নির্দেশ দেওয়ার সাথে সাথে দুই ডিভিশন বেঞ্চ আরও জানিয়েছেন, সুখ-সমৃদ্ধি পরিবারের জন্য ভালো হলেও এখানে এটিকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে। এখানে স্ত্রী স্বামীকে পুরোপুরি ত্যাগ করেছিলেন, আর সেই কারণেই বিবাহবিচ্ছেদ স্বামীর অধিকার।