নুসরাত প্রসঙ্গে কেন চুপচাপ মিমি? জানুন কারন

15
নুসরাত প্রসঙ্গে কেন চুপচাপ মিমি? জানুন কারন

সম্প্রতি নুসরাতের জীবন নিয়ে যেভাবে সোশ্যাল মিডিয়ার উত্তাল হয়েছে তা নিয়ে নিঃসন্দেহে একটি সিনেমার স্ক্রিপ্ট তৈরি হয়ে যায়। একদিকে যেমন রয়েছেন যশ দাশগুপ্ত এবং অন্যদিকে রয়েছেন নিখিল জৈন। এই দুজনের মাঝখানে রয়েছে নুসরাত জাহান। সম্প্রতি নুসরাত জাহানের বেবি বাম্প কে ঘিরে তৈরি হয়েছে জল্পনা-কল্পনা। যদিও এর মধ্যেই নিখিল জৈন জানিয়ে দিয়েছেন যে, এই সন্তান তার নয়। তবে এই বিষয়ে এখনও যশ দাশগুপ্ত অথবা নুসরাত জাহান কোনো কথা বলেননি।

বিতরকের মাঝখানেই বেবি বাম্প নিয়ে ক্যামেরার সামনে ধরা দেয় নুসরাত জাহান। ছবিটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে তার অনেকগুলো কারণ আছে। ছবিতে মিমি চক্রবর্তীকে একেবারেই দেখা যায়নি তার বদলে দেখতে পাওয়া গেছে শ্রাবন্তী এবং অভিনেত্রী তনুশ্রী কে। কিছুদিন ধরেই মিমি চক্রবর্তী একেবারে কুলুপ এঁটেছেন তার বন্ধু তথা বোনের বিতর্ক ঘিরে।

নুসরাত জাহানের সবথেকে বিপদের সময় যখন থাকা উচিত মিমি চক্রবর্তীর তখন তাকে দেখা যাচ্ছে না। কি হতে পারে এই কারণ? তাদের মধ্যে দূরত্ব আসার কারন কি? আসলে এর নেপথ্যে রয়েছে আরও একটি ত্রিকোণ প্রেমের গল্প। যশ দাশগুপ্তকে বহুদিন ধরেই পছন্দ করতেন মিমি চক্রবর্তী। কিন্তু যশ দাশগুপ্ত এবং নুসরাত জাহানের এই রকম সম্পর্ক একেবারে মেনে নিতে পারেননি অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। তাই স্বাভাবিক ভাবেই তিনি সকলের থেকেই সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়াতেও একে অপরকে এড়িয়ে চলার প্রবণতা লক্ষ্য করা গেছে।

অন্যদিকে মিমি চক্রবর্তী একমাত্র উপস্থিত ছিলেন নুসরাত জাহানের বিয়েতে। কিন্তু সম্প্রতি নুসরাত জাহান একেবারেই অস্বীকার করে দিচ্ছেন যে কার বিয়ে হয়েছিল কোন দিন। এই প্রসঙ্গে মিমি চক্রবর্তী কোন কথা না বললেও সম্ভবত মিমি চক্রবর্তী নিজেই অপমানিত বোধ করেছেন এই কথা শুনে। তাই আপাতত যতদিন ধরে এই বিতর্ক চলছে অথবা চলবে ততদিন হয়তো মিমি চক্রবর্তীকে এই সমস্ত প্রসঙ্গ থেকে দূরে থাকতে দেখা যাবে।