দিন দিন মানুষের চোখের গড়ন বদলে যাচ্ছে কেন? দেখুন কি বলছে গবেষণা

11
দিন দিন মানুষের চোখের গড়ন বদলে যাচ্ছে কেন? দেখুন কি বলছে গবেষণা

দিন দিন বদলে যাচ্ছে চোখের গড়ন, কেনো এরকম হচ্ছে? এর কারণ কি? মোবাইল ফোন কি এর জন্য দায়ী? কি বলছে গবেষণা? আমরা যখন ফোনে কোনো কাজ করি অথবা কোনো কারণে ফোনেটাকে চোখের সামনে ধরি তখন আমাদের চোখের দৃষ্টিভঙ্গি অনেকাংশে বদলে যায়। মোবাইল ফোনের সাথে বলতে গেলে এক কথায় আমাদের চোখ খাপ খেয়ে গেছে।

ইংল্যান্ডের কয়েকজন চক্ষুবিদদের মতে বিজ্ঞান বইতে মানুষের চোখের যে ছবি দেওয়া রয়েছে তা এখন বর্তমানে বদলে যাচ্ছে কারণ আগে আমাদের চোখের যে গোলাকার গড়নটি ছিল তা এখন আকার নিচ্ছে জলপাই এর মত। এই কারণেই চোখের সামনের দিকটা অনেকাংশে বেরিয়ে আসার মতই দেখাচ্ছে। একটি গবেষণাপত্রে বলা হয়েছে যে প্রত্যেকটি মানুষ প্রত্যেকদিন প্রায় ৬ ঘন্টা ৫৫ মিনিট ধরে ফোনের দিকে একভাবে তাকিয়ে থাকেন কারণ বর্তমানে প্রায় ৪৬ শতাংশ মানুষেরই কম্পিউটার অথবা ফোনের মাধ্যমে সময় কাটে যার ফলে চোখের একাংশই বদলে যাচ্ছে।

এর প্রভাব বেশি পড়ছে শিশুদের ওপর। বড়দের ক্ষেত্রে এই আশঙ্কাটা অনেক অংশে কম হলো ছোটদের ক্ষেত্রে এই আশঙ্কাটা অনেক বেশি দেখা দিচ্ছে। ১৬ থেকে ১৭ বছরের আগে পর্যন্ত চোখের বিকাশ সম্পন্ন হয় না বাচ্চাদের ক্ষেত্রে তাই এর আগে পর্যন্ত যদি বাচ্চারা অতিরিক্ত মোবাইল ফোন ব্যবহার করে তবে তাদের চোখের গড়ন অনেকাংশেই বদলে যায়।

চিকিৎসকদের মতে ফোন ঘাটার সময় আমাদের সমস্ত ফোকাশ থাকে ফোনের ওপর এবং যার জন্য আশেপাশে সমস্ত কিছুই আমাদের চোখে ঝাপসা হয়ে যায়। এইরকম যদি দীর্ঘদিন চলতে থাকে তবে ভবিষ্যতে চোখ নিজের আলো যাওয়ার রাস্তাটাকেও অনেক অংশে শুরু করে দিতে বাধ্য হয় ফলে চোখের গঠন অনেকাংশেই বদলে দিতে পারে। এই সমস্যা থেকে সমাধান এর জন্য চিকিৎসকরা জানিয়েছেন রে পারলে অন্তত প্রত্যেকদিন ২ ঘন্টা ফোনের থেকে দূরে থেকে বাড়ির বাইরে থাকেন অনেক আলো অথবা রোদে ঘোরাঘুরি করেন তাতেও অনেক অংশে এ সমস্যার সমাধান মিটবে