কেন নিজেকে ঘরবন্দি করে ফেলেছেন হানি সিং? জানুন কারন

15
কেন নিজেকে ঘরবন্দি করে ফেলেছেন হানি সিং? জানুন কারন

এই কয়েক বছর আগে পর্যন্ত ইয়ো ইয়ো হানি সিংকে নিয়ে মাতামাতি ছিল চোখে পড়ার মতো। হানি সিংয়ের গান মানেই সুপারহিটের তালিকায় থাকতে বাধ্য সেই গান। তবে আচমকাই যেন বলিউড থেকে গায়েব হয়ে যান তিনি। এখন আর তাকে ঘিরে দর্শকে তেমন উন্মাদনা চোখে পড়ে না। হানির গান আগের মত শোনা হয়ে ওঠেনা দর্শকের। ইন্ডাস্ট্রি থেকে যেন রাতারাতি উধাও হয়ে যান তিনি। নেপথ্যে, কিং খানের সঙ্গে তার বিবাদ।

কেরিয়ারের শুরুতে হানি তার দুই বন্ধু রফতার এবং বাদশাহকে সঙ্গে নিয়ে নিজের একটি ব্যান্ড খুলেছিলেন। নিজেদের লেখা, সুর করা এবং গাওয়া পাঞ্জাবি গান রেকর্ড করে ইউটিউবে আপলোড করতেন তারা। হানির গাওয়া প্রতিটি গান হয়েছিল সুপারহিট। রাতারাতি জনপ্রিয়তা অর্জন করে বলিউডে কাজ করার সুযোগ পেয়ে যান হানি। সেই সময় তার গাওয়া প্রতিটি গান সুপারহিট হতো। শোনা যায় একটি গানের জন্য তিনি নাকি ৭০ লক্ষ টাকা পারিশ্রমিক নিয়েছিলেন! সেই গান গেয়ে বলিউডের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত গায়কের তালিকায় উঠে এসেছিলেন হানি।

তবে এর পরেই শাহরুখ খানের সঙ্গে বিবাদের জেরে বলিউড থেকে দু’বছরের জন্য গায়েব হয়ে গিয়েছিলেন হানি সিং। ২০১৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ এর প্রমোশনে একটি অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে শাহরুখের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে ফেলেছিলেন হানি। সেই সময় তার উপর এতটাই চটেছিলেন শাহরুখ যে সরাসরি সর্বসমক্ষে হানির গালে সপাটে চড় কষিয়ে দেন কিং খান। সেই ঘটনার পর থেকেই নিজেকে সম্পূর্ণ বাড়িতে বন্দি করে ফেলেন হানি সিং। খুব চেনা পরিচিত ছাড়া কারোর সঙ্গেই কথা বলতেন না তিনি।

তবে তার মাঝেও আচমকা একদিন অক্সিজেন মাস্ক মুখে হানির একটি ছবি সোশ্যাল সাইটে ভাইরাল হয়ে যায়। সেই ছবি দেখে তার অনুরাগীরা তার স্বাস্থ্য নিয়ে ভীষণ চিন্তিত হয়ে পড়েন। তার ঠিক কিছুদিন বাদেই হানি সিং সর্বসমক্ষে এসে ঘোষণা করেন যে তিনি বাইপোলার সিনড্রোম নামের একটি মানসিক রোগে ভুগছিলেন। সম্পূর্ণ সুস্থ হয়েই আবার ফিরে এসেছেন তিনি। যদিও সেই সময় শোনা গিয়েছিল যে অতিরিক্ত মাদক সেবনের কারণেই নাকি অসুস্থ হয়ে পড়েন হানি সিং।