কেন বিয়ের কথা মানতে চাননি আদিল? জানালেন নিজেই

5
কেন বিয়ের কথা মানতে চাননি আদিল? জানালেন নিজেই

গত বছরের মে মাসে বিয়ের বাঁধনে আবদ্ধ হয় আদিল এবং রাখী। তারা আইনি বিয়ে ছাড়াও নিকাহনামাতে সই করেছেন কিন্তু হঠাৎ এই বিয়ের খবরটা ভাইরাল হয় কিছুদিন আগে এবং বিয়ের সমস্ত ছবি ও প্রকাশে আসে। রাখী সাওয়ান্তের সঙ্গে যে আদিল খান দুরানি বিয়ে করেছেন সে কথাও স্বীকার করে নিয়েছেন তিনি।

হঠাৎ গত সোমবার সামাজিক মাধ্যমে একটি পোস্ট দিয়ে আদিল জানিয়েছেন, তিনি রাখীকে বিয়ে করেছেন। তিনি লেখেন, “রাখীকে আমি বিয়ে করেছি, আমি কখনোই বলিনি যে রাখীকে আমি বিয়ে করিনি। কিন্তু একটু ব্যাপারটা সামনে নেওয়ার পরেই এই ব্যাপারটা সকলকে জানাতাম, সেই কারণেই এতদিন চুপ ছিলাম।”

এইরকম খবরে যখন রাখীর অনুরাগীরা একটু নিশ্চিন্ত অনুভব করছিলেন ,ঠিক সেই সময়েই রাখী নিজেই একটি খবর ফাঁস করলেন। রাখী জানান, “সালমান খান আদিল খানকে ফোন করেছিলেন। সালমান খান চেয়েছিলেন আদিল খান যেন এই বিয়ে কখনোই অস্বীকার করতে না পারে। তাই সালমান খান ফোন করার পরেই যা হওয়ার হয়েছে।”

রাখী জানান, আদিল খানকে সালমান খান বেশ পছন্দ করেন। রাখীর দৌলতেই সালমান খানের সঙ্গে আদিল খানের অনেকবার দেখা হয়েছে। তবে এই রকম একটি খবর প্রকাশ্যে আসার পরেই নেটিজেনদের প্রশ্ন তবে কি অবশেষে সালমান খানের ভয়েই আদিল খান সমস্ত কিছু স্বীকার করে নিলেন? এখন নেটিজেনদের একটাই প্রশ্ন যে তাহলে এই ধরনের সম্পর্কের ভবিষ্যৎ কি হতে চলেছে?

তবে জানা গেছে আদিল এই বিয়ের কথা মানতে চাননি, সেই কারণে কান্নায় ভেঙে পড়েছিলেন রাখী। রাখী জানিয়েছেন, ৭ মাস আগে তাদের বিয়ে হয়েছে কিন্তু রাখি, বিয়ের কথা কাউকে বলেনি কারণ আদিলই তাকে বারণ করেছিলেন। অবশেষে যখন তিনি বিগবস মারাঠিতে যান সেখানেই অনেক কিছু ফাঁস হয়ে যায়। রাখী জানান তিনি হারাম করেননি তিনি হালাল করেছে। এমনকি তিনি তার নিজের নামও বদলে দিয়েছেন, ধর্ম পরিবর্তন করেছেন। তিনি ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। এখন তার একটাই প্রশ্ন যে এত কিছু করার পরেও আদিল কিভাবে এই বিয়েকে অস্বীকার করছেন।

তবে অবশেষে সমস্ত নাটকের পরে আদিল বিয়ের কথা স্বীকার করে নিয়েছে। যদিও এই ধরনের বিয়ের ভবিষ্যতে কি তা নিয়ে যথেষ্ট দ্বন্দ্বে রয়েছে রাখির অনুরাগীরা।