প্রার্থী হিসেবে কে দাঁড়াচ্ছেন তা নির্ভর করবে দলের সিদ্ধান্তের উপরঃ দিলীপ ঘোষ

12
প্রার্থী হিসেবে কে দাঁড়াচ্ছেন তা নির্ভর করবে দলের সিদ্ধান্তের উপরঃ দিলীপ ঘোষ

একুশের নির্বাচনী লড়াই যত এগিয়ে আসছে রাজনৈতিক মহল জুড়ে দলবদল তত যেন বেড়েই চলেছে। একুশে বাংলাকে গেরুয়া মোড়কে মুড়ে ফেলতে চাইছে বিজেপি। তার জন্য বিরোধী রাজনৈতিক শিবির বিশেষত তৃণমূল শিবিরের অন্তর্ভুক্ত রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের দলে টেনে নিতে চাইছে কেন্দ্রীয় শাসক দল। টলিউডের বহু অভিনেতা অভিনেত্রীও রাজনীতির এই প্রেক্ষাপটে বিজেপি শিবিরে যোগদান করছেন।

তবে একুশের লড়াইয়ে যারা বিজেপি শিবিরের শক্তি বৃদ্ধি করছেন তারা প্রত্যেকেই যে লড়াইয়ের সুযোগ পাবেন তেমনটা কিন্তু নয়। সম্প্রতি বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ দলের এই অবস্থান স্পষ্ট করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, দলে যারা নতুন আসছেন তারা প্রত্যেকেই বিধানসভা নির্বাচনের টিকিট পাবেন, এমনটা নয়। যাদের ভোটে জেতার সম্ভাবনা থাকবে কেবল তারাই বিজেপির প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হবেন।

উল্লেখ্য, একুশের নির্বাচন পূর্বে যে হারে বিজেপি দলের নতুন সদস্যদের আগমন ঘটছে তাতে স্বভাবতই পুরোনো বিজেপি কর্মীদের মনে শঙ্কা দেখা দিয়েছে। এ থেকে বিজেপি শিবিরের আদি এবং নব্যের মধ্যে দ্বন্দ্ব জন্ম নিতে পারে। তবে সেই সম্ভাবনা কার্যত নির্মূল করে দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, একুশের লড়াইয়ে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে কে দাঁড়াচ্ছেন তা নির্ভর করবে দলের সিদ্ধান্তের উপর।

একই সঙ্গে তিনি স্পষ্ট করে দিয়েছেন, দলের নবাগত সদস্যদের আগে বিজেপি শিবিরের রাজনৈতিক আদব-কায়দা শিখতে হবে। বিজেপির মতাদর্শগুলি সম্পর্কে জানতে হবে। উল্লেখ্য, বহুদিনের জল্পনার অবসান ঘটিয়ে মঙ্গলবার বৈদ্যবাটিতে গেরুয়া শিবিরে প্রবেশ করেছেন আসানসোলের প্রাক্তন তৃণমূল মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি। দিলীপ ঘোষের হাত থেকেই এদিন গেরুয়া পতাকা নিজের হাতে তুলে নেন তিনি।