লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পে এত অর্থের যোগান হবে কোথা থেকে? চিন্তায় সরকারি আধিকারিকরা

44
লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পে এত অর্থের যোগান হবে কোথা থেকে? চিন্তায় সরকারি আধিকারিকরা

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাধের প্রকল্প লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প। সম্প্রতি নবান্ন থেকে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দিয়েছেন যে শুধুমাত্র পরিবারের একজন মহিলাই নন। পরিবারের বাকি মহিলা সদস্যরাও লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পে সরকারের কোষাগার থেকে অর্থ পাবেন। মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণার ফলে প্রাপকের সংখ্যা একলাফে ১ কোটি ৬০ লক্ষ থেকে বেড়ে হয়ে গিয়েছে ২ কোটি ৬০ লক্ষ। তবে মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণার ফলে কার্যত চিন্তার ভাঁজ পড়েছে সরকারি আধিকারিকদের কপালে।

একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন যে পরিবারের একজন মহিলা, যার নাম স্বাস্থ্য সাথী কার্ড আছে তিনিই কেবল লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত হতে পারবেন। তবে এখন জানানো হয়েছে যে পরিবারের বাকি সদস্যরাও এই প্রকল্পের আওতায় আসতে পারবেন। মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণার পরেই আবেদনের হার হু হু করে বাড়ছে।

একদিনের মধ্যেই ৩০ লক্ষ আবেদন জমা পড়ে গিয়েছে। সারা রাজ্য জুড়ে ২২ হাজার ক্যাম্প খোলা হয়েছে। পরিবারের একাধিক মহিলাকে এই প্রকল্পের সুবিধা দেওয়ার ফলে লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পের জন্য বাজেট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭ থেকে ১৮ হাজার কোটি। এটাই কার্যত সরকারি আধিকারিকদের মাথায় হাত পড়েছে। এত বিপুল পরিমাণে অর্থের যোগান হবে কোথা থেকে? ভেবে পাচ্ছেন না তারা।

যদিও সরকার তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে নেতামন্ত্রীদের খরচ কমিয়ে লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের টাকার যোগান দেওয়া হবে। লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পে সারা রাজ্য জুড়ে ব্যাপক সাড়া পাওয়া গিয়েছে। গত ১৬ই আগস্ট থেকে দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের জন্য আবেদন গ্রহণ করা হচ্ছে।