শরীরের যেখানে সেখানে আঁচিল? জানুন কীভাবে দূর করবেন

6
শরীরের যেখানে সেখানে আঁচিল? জানুন কীভাবে দূর করবেন

ত্বকে আমাদের নানান রকম সমস্যা হয়ে থাকে এবং যে সমস্যাগুলো সমাধান করতে অনেক সময় বছর বছরও লেগে যায়, কিন্তু এমন একটি ত্বকের সমস্যা রয়েছে যেটা রাতের নিমিষেই আমাদের ত্বকে দেখা দিতে পারে, আবার নিমেষের মধ্যে এই সেই সমস্যাও দূর হয়ে যেতে পারে এবং এই সমস্যাটি হল ছোট ছোট আঁচিল যেগুলি হঠাৎ করেই শরীরের যেখানে সেখানে দেখা দেয়।

এই সমস্যার জন্য অনেকেই চিকিৎসকদের পরামর্শ নিয়ে থাকেন কিন্তু আসলে কখনোই চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার প্রয়োজন নেই। এই সমস্যার ক্ষেত্রে ডার্মাটোলজিস্টের পরামর্শ নিলেই কাজ হয়ে যাবে। কিন্তু আগে সব সময় চেষ্টা করতে হবে প্রাকৃতিক উপায়ে এই সমস্যাগুলো সমাধান করা।

কিভাবে প্রাকৃতিক উপায়ে আপনি এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন সে ব্যাপারে আলোচনা করা যাক।

১. একটি ডিম ভেঙে নিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে ব্রাশ দিয়ে সেটিকে আঁচিলের উপর লাগিয়ে দিন, এরকমই দুই সপ্তাহ ধরে টানা করতে থাকুন এবং ৫ থেকে ৭ মিনিট পর্যন্ত রাখতে হবে অবশেষে সাবান এবং ঠান্ডা জল দিয়ে পুরো মুখ পরিষ্কার করে ধুয়ে নিতে হবে।

২. অ্যাপেল সিডার ভিনিগার যেটি তুলোর সাহায্যে যদি আঁচিলের ওপর সারারাত ধরে লাগিয়ে রাখতে হবে ।

৩. এর পরেই রয়েছে পেঁয়াজের রস,যেটিতে রয়েছে অ্যান্টিসেপটিক গুন। পেঁয়াজের রসে অনেক ব্যাকটেরিয়া মরে যায় সেজন্য আঁচিলের ওপর যদি পেঁয়াজের রস লাগানো হয় এবং বেশ কিছুক্ষণ রেখে ধুয়ে ফেলা হয় তা হলেও এটি অনেকটাই কাজ করবে।

৪. বেকিং সোডা এটা অত্যন্ত কার্যকরী একটি টোটকা। ক্যাস্টর অয়েলের মধ্যে বেকিং পাউডার মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করে নিয়ে সেটি আঁচিলের ওপর লাগিয়ে রাখুন সারারাত।

৫. প্রাচীন চিকিৎসা শাস্ত্রে এবং আয়ুর্বেদে হলুদের একটি বিশেষ গুণ এবং উপকারিতা রয়েছে। বলা যায় যে ত্বকের যত্নের ক্ষেত্রে হলুদের বিকল্প আর অন্য কিছু হয় না। এক চামচ হলুদ গুঁড়ো নিয়ে তার মধ্যে একটি ভিটামিন সি ট্যাবলেট নিয়ে তার মধ্যে একটু মধু দিতে পেস্ট তৈরি করে সেটি আঁচিলের ওপর লাগিয়ে রাখতে হবে। বেশ কিছুক্ষণ পরে শুকিয়ে গেলে তখন মুখ ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে। এরকম করে প্রত্যেকদিন দুই বার করে এই টোটকা ব্যবহার করলে আশা করা যাচ্ছে এই সমস্যা থেকে অনেকেই মুক্তি পাবেন।