ঘূর্ণিঝড়ের পর কেমন থাকবে রাজ্যের আবহাওয়া? দেখে নিন এক নজরে

13
ঘূর্ণিঝড়ের পর কেমন থাকবে রাজ্যের আবহাওয়া? দেখে নিন এক নজরে

প্রবল শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ইয়াস ইতিমধ্যেই শক্তি হারিয়েছে। শক্তি হারিয়ে সে আবার নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের সেই শক্তি এখন আর নেই। ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডবের আশঙ্কা কেটে গেলেও নিম্নচাপের দরুন পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় গত বুধবার থেকেই চরম বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। বুধ-বৃহস্পতিবার টানা বৃষ্টি হওয়ার পর এবার শুক্রবারেও বৃষ্টিপাতের রেশ চলবে বলে জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর।

হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, শুক্রবার সারাদিন ধরে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টিপাত শুরু হবে। পাশাপাশি ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা বেগে ঝোড়ো হাওয়াও বয়ে যেতে পারে। পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং, মালদা ও উত্তর দিনাজপুর জেলার কিছু অংশে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত শুরু হতে পারে। আজ সারাদিনই পশ্চিমবঙ্গের আকাশের মুখ ভার থাকবে বলে জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর।

এই সপ্তাহটা পুরোটাই আকাশের মুখভার থাকবে বলে জানানো হয়েছে। রবিবারের পর থেকে অবশ্য পরিস্থিতি কিছুটা বদলাতে পারে। ঘূর্ণি ঝড়ের দাপট কমে গেলেও এখনো পর্যন্ত জলীয়বাষ্প যোগান দিয়ে যাচ্ছে আবহাওয়ায়। যার ফলে বজ্রগর্ভ মেঘ সৃষ্টি হচ্ছে। শুক্রবার থেকে আবার দার্জিলিং এবং কালিম্পংয়ে ভারী বৃষ্টিপাত হতে চলেছে বলে জানানো হয়েছে। দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গও ভারী বৃষ্টিপাতে ভাসতে চলেছে।

শুক্রবার কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩১.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, স্বাভাবিকের থেকে যা প্রায় তিন ডিগ্রি কম। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৫.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে, স্বাভাবিকের থেকে যা প্রায় এক ডিগ্রী কম। বাতাসের আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৯৭ শতাংশ ও ন্যূনতম ৮৩ শতাংশ রেকর্ড করা হয়েছে।