কেন্দ্র রাজ্য সংঘাত নিয়ে যা বললেন শুভেন্দু

17
কেন্দ্র রাজ্য সংঘাত নিয়ে যা বললেন শুভেন্দু

আজ ২৩শে জানুয়ারি। ভারত মায়ের বীর সন্তান নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মদিন। আজ গোটা দেশজুড়ে স্মরণ করা হচ্ছে তাকে। রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে নেতাজি জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে একাধিক পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। এদিকে রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকারের রাজনৈতিক সংঘাতকে কেন্দ্র করে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী বললেন, নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু ভারতবর্ষের প্রথম প্রধানমন্ত্রী হলে আজকে ভারতবর্ষে এত দুঃখ কষ্ট যন্ত্রণা এবং বেকারত্ব থাকতো না।

সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশের আইএএস এবং আইপিএস অফিসারদের নিয়ে একটি বৈঠকের আয়োজন করেছিলেন। এই বৈঠকে বাংলার আইএএস, আইপিএস অফিসাররাও আমন্ত্রিত ছিলেন। তবে মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে তারা প্রধানমন্ত্রীর এই বৈঠকের আহ্বান উপেক্ষা করেছেন। আইপিএস, আইএস এবং আইএফএস আধিকারিকদের নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে আইন সংশোধন করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকার এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছিল।

এই উদ্যোগের পর আর কোনো অফিসার মুখ্যমন্ত্রীর কথা শুনে চলবেন না। শনিবার নদীয়ার কল্যাণীতে একটি দলীয় বৈঠকে অংশগ্রহণ করে এই কথা বলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। কেন্দ্রীয় প্রকল্প বাস্তবায়নের উদ্দেশ্যে শনিবার প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বিভিন্ন রাজ্যের জেলা শাসকদের নিয়ে বৈঠক ডাকা হয়েছিল। তবে পশ্চিমবঙ্গ থেকে কোনো জেলা শাসক এই বৈঠকে অংশগ্রহণ করেননি।

শুভেন্দু অধিকারী দাবি করেন, মুখ্যমন্ত্রী দপ্তর থেকে তার সচিব গৌতম সান্যাল জেলাশাসকদের প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক উপস্থিত না থাকার নির্দেশ দিয়েছিলেন। তিনি আরো বলেন যদি এই আইন সংশোধন হয় তাহলে জেলাশাসকরা আর মুখ্যমন্ত্রীর কথা শুনে চলবেন না। এরপরই শুভেন্দু অধিকারী বলেন নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ভারতবর্ষের প্রথম প্রধানমন্ত্রী হলে ভারতবর্ষে এত দুঃখ, কষ্ট, যন্ত্রণা, বেকারত্ব থাকতো না।