সন্ত্রাসবাদীদের সঙ্গে সংযোগ রাখার অপরাধে গ্রেপ্তার মেহবুবা মুফতি ঘনিষ্ঠ ওয়াহিদ পররার

16
সন্ত্রাসবাদীদের সঙ্গে সংযোগ রাখার অপরাধে গ্রেপ্তার মেহবুবা মুফতি ঘনিষ্ঠ ওয়াহিদ পররার

কাশ্মীরের পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতির বিরুদ্ধে জঙ্গী মদতের মতো গুরুতর অভিযোগ উঠলো। মেহবুবা মুফতি ঘনিষ্ঠ পিডিপি যুবনেতা ওয়াহিদ পররার সঙ্গে সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠী হিজবুল মুজাহিদিনের সদস্যদের যোগসুত্র খুঁজে পেয়েছে ভারতের তদন্তকারী সংগঠন এনআইএ। সন্ত্রাসবাদীদের সঙ্গে সংযোগ রাখার অপরাধে ওয়াহিদ পররাকে গ্রেপ্তার করেছে এনআইএ।

এনআইএ সূত্রে খবর, হিজবুল কম্যান্ডার নাভেদ বাবুর সঙ্গে ওয়াহিদের যোগাযোগের উপযুক্ত প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। তাকে জেরা করেও বেশ কিছু সন্দেহজনক তথ্য জানতে পেরেছে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা। উল্লেখ্য, হেফাজতে নেওয়ার পর গত দু’দিন ধরে দিল্লিতে এনআইএ এর সদর দফতরে ওয়াহিদ পররাকে অনবরত জেরা করা হয়েছে। জেরায় হিজবুল মুজাহিদীনের সঙ্গে সংযোগ রাখার পাশাপাশি হাওলা লিঙ্ক নিয়েও তাকে একাধিকবার প্রশ্ন করা হয়।

জেরার পরেই বুধবার জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা তাকে গ্রেপ্তার করে। উল্লেখ্য, দক্ষিণ কাশ্মীরে পিডিপির সক্রিয় নেতা হলেন মেহেবুবা মুফতি ঘনিষ্ঠ ওয়াহিদ পররা। সামনেই ডিডিসির নির্বাচন। নির্বাচনে পুলওয়ামা থেকে পিডিপি প্রার্থী হিসেবে দাঁড়িয়েছেন ওয়াহিদ। নির্বাচনের আগেই তার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে সংযোগ রাখার তথ্য প্রকাশে আসায় স্বভাবতই বেশ চাপে পড়লো পিডিপি।

উল্লেখ্য, কাশ্মীরের ডিএসপি দাবিন্দর সিংয়ের বিরুদ্ধে হিজবুল মুজাহিদিনের সক্রিয় সদস্য নাভেদ বাবুকে নিজের গাড়িতে করে নিরাপদ স্থানে পৌঁছে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে দাবিন্দর সিংকে জেরা করে ওয়াহিদের সম্পর্কে জানতে পারে এনআইএ। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মেহেবুবা মুফতির বক্তব্য, ওয়াহিদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। পিডিপি-সহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলিকে রীতিমতো কোণঠাসা করতেই এমন ষড়যন্ত্র করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন মেহবুবা।