চাঞ্চল্যকর খবর: পাত্র লিঙ্গ না দেখালে বিয়ে ঠিক হবে না জানিয়ে দিলো পাত্রীর কাকু

11
চাঞ্চল্যকর খবর: পাত্র লিঙ্গ না দেখালে বিয়ে ঠিক হবে না জানিয়ে দিলো পাত্রীর কাকু

এই মেয়ের বাড়ির আবদার শুনলে আপনার হাসি ও রাগ দুটোই হওয়া দরকার বলে মনে হয়।একবার পরেই দেখুন প্রতিবেদনটি।এক অদ্ভুত ঘটনা ঘটেছে বিয়ের জন্য দেখাদেখিকে কেন্দ্র করে।

এই বিরলতম ঘটনাটি ঘটেছে বাংলাদেশের চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ জেলায়।বিয়ে ঠিক দিতে গিয়ে পাত্র পক্ষের কাছে পাত্রের লিঙ্গ দেখার আবদার করে বসলো পাত্রী পক্ষ।তাতেই ঘটে বিপত্তি।

জানা গিয়েছে, পাত্রপক্ষ যখন পাত্রী দেখতে মেয়ের বাড়িতে যায় তখন মেয়ে দেখা হয়ে মেয়ে পছন্দও হয়ে যায় পাত্র পক্ষের।তখনই ঘরে প্রবেশ করেন মেয়ের কাকু,তিনি এসে ছেলের বাবার হাত ধরে বলেন একটি আবদার আছে।

ছেলের সাথে একা কিছু কথা বলতে চায় সেই মেয়ের কাকু।ছেলের বাবাও সরল মনে রাজি হয়ে যান।তিনি ভাবতেও পারেননি যে তার ছেলের সাথে এরকম কান্ড ঘটতে পারে।

পাত্রকে মেয়ের কাকু একঘরে নিয়ে গিয়ে প্যান্ট খুলে লুঙ্গি পড়তে বলেন।এতক্ষন পর্যন্ত সব ঠিকই ছিল।কোনো সন্দেহ হয়নি পাত্রেরও।কিন্তু লুঙ্গি পড়ার পর পাত্রীর কাকু বলে এবার লুঙ্গিটা তুলো কিছু দেখবো।

এই কথা শুনে পাত্র রাজি না হওয়ায় জোর করে লুঙ্গি তুলে দেন সেই কাকু, লুঙ্গি তুলে ছেলের লিঙ্গের ছবি তুলে মেয়ের কাকু তাও আবার ডিএসএলআর দিয়ে।ঘরের কোণে লুকিয়ে থাকা বাড়ির অন্যরাও ইতিমধ্যে ওই ঘরে প্রবেশ করেছে।

তাদের দেখে পাত্র মহাশয় খুব লজ্জায় পরে যায়।পাত্রের বাবা অন্যরকম কিছু ঘটার আশঙ্কা করে ওই ঘরে প্রবেশ করে দেখেন তার ছেলে উলঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে, তাকে ঘিরে রয়েছে কনেপক্ষের লোকজন।

পাত্রের বাবাকে দেখে মেয়ের কাকু ক্যামেরা লুকিয়ে ফেলেন।পরে এই বিষয়টি নিয়ে মামলা হলে মেয়ের কাকু জানায়,তিনি তার ভাস্তির বিবাহিত জীবনের কথা চিন্তা করে এরকম কান্ড করেছেন।

ভাস্তী যাতে বিয়ের পর সুখী হতে পারে সেজন্য এরকম অদ্ভুত কান্ড ঘটিয়ে বসেন তিনি।তবে তাকে সাহায্য করেছে পাত্রীর বাড়ির লোকজন।