অবিবাহিতরা ভুলেও ছুবেন না শিবলিঙ্গ, ঘটতে পারে মহা বিপদ! জানুন রহস্য

6
অবিবাহিতরা ভুলেও ছুবেন না শিবলিঙ্গ, ঘটতে পারে মহা বিপদ! জানুন রহস্য

ত্রিলোকেশ্বর শিব। যাকে পেতে আট থেকে আশি মহিলারা কিন্তু প্রাণপণে চেষ্টা করেন। তাই তো শিবের ব্রত করেন প্রায় সমস্ত হিন্দু পরিবারের মেয়েরাই। শিবরাত্রি ছাড়াও বৈশাখ মাসে শিবের ব্রত, কিংবা প্রতি সোমবার শিবের ব্রত পালন করে থাকেন মহিলারা। শিবের মত স্বামী পাওয়ার জন্যই নাকি মহিলারা শিব পূজো করে থাকেন, যুগ যুগ ধরে এই কথাটি প্রচলিত রয়েছে।

তাই তো নিষ্ঠাভরে ভক্তি ভরে সকলেই শিব পুজো করে থাকেন। যদিও আসলে শিব পুজোর গুরুত্ব ঠিক কোথায় তা হয়তো অনেকেরই অজানা। তবে এত ভক্তি ভরে পুজো করলেও শিব ঠাকুরের লিঙ্গ ছোঁয়ার অধিকার কিন্তু অবিবাহিত মহিলাদের থাকে না। কিন্তু কেন? শিবপুরানে একটি বিষয় কথিত আছে। তা থেকে জানা গিয়েছে মা দূর্গার স্বামী শিব, কিন্তু জানা যায় শিবের তপস্যার সময়ে দূর্গা শিবের থেকে অনেক দূরে থাকতেন।

কারণ শিব যখন তপস্যা করেন, তখন যদি অবিবাহিতরা তাঁর চারপাশে থাকে, তাঁকে স্পর্শ করে তাহলে ধ্যান ভঙ্গ হতে পারে। শিব ধ্যান ভঙ্গ হলে আদতে ক্ষতি তাঁদেরই। এমনকি রেগে যান পার্বতীও। তাই শিবকে না রাগানোর জন্য এবং ধ্যান ভঙ্গ যাতে না হয় তার জন্যই অবিবাহিত মহিলাদের শিবলিঙ্গ স্পর্শ করার অধিকার নেই।