সোনা জিততে না পারায় কেঁদে ফেললেন তুলিকা মান

7
সোনা জিততে না পারায় কেঁদে ফেললেন তুলিকা মান

বার্মিংহামে আয়োজিত কমনওয়েলথ গেমসের দুটো প্রতিযোগিতায় একটুর জন্য সোনা জিতে ফিরতে পারলেন না ভারতের মেয়ে তুলিকা মানে। রুপোর পদক পেয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে তাকে। প্রতিযোগিতায় সোনা জিততে না পারার দুঃখে রীতিমতো কেঁদে ফেলেন তুলিকা। ফোনে মাকে সেই খবর জানাতে গিয়ে কেঁদে ফেলেন তিনি।

অনেক লড়াই করে তবে তিনি এই পর্যায়ে পৌঁছতে পেরেছিলেন। তবে এত কষ্টের পরেও এই প্রতিযোগিতায় সোনার পদক জিতে না পেরে তিনি মায়ের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিলেন। উল্লেখ্য দিল্লি পুলিশের সাব ইন্সপেক্টর পদে রয়েছেন তুলিকার মা অমৃতা। ছোট থেকে মায়ের কাছেই বড় হয়ে উঠেছেন তিনি।

তুলিকার উপজেলা করার পর তার মা বলেছেন তিনি জানেন সোনার পদক জিততে না পারার কারণে তার মেয়ে অনেক হতাশ হয়ে পড়েছে। তবে তিনি যে রূপোর পদক জয় করেছেন সেটা কিছু কম বড় সাফল্য নয়। ৭৮ কিলোগ্রাম ওজন বিভাগের স্কটল্যান্ডের সারা এড্লিংটনের বিরুদ্ধে হেরে গিয়েছেন তুলিকা।

তুলিকার মা অমৃতা বধূ নির্যাতনের হাত থেকে রেহাই পেতে 2011 সালে শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে দিয়েছিলেন। পুলিশে চাকরি করতে করতে মেয়েকে বড় করে তোলা তার জন্য অনেক বড় কঠিন চ্যালেঞ্জ ছিল। ২০১৯ সালে সাউথ এশিয়ান গেমসে সোনার পদক পেয়েছিল তুলিকা। চারবার ন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে সে। তবুও কমনওয়েলথ গেমসে আসার রাস্তাতে অনেক প্রতিবন্ধকতা তৈরি হয়েছিল তার।