দুষ্কৃতীদের দলে জায়গা করে দিচ্ছে তৃণমূল! কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী বক্তব্যে অস্বস্তিতে দল

11
দুষ্কৃতীদের দলে জায়গা করে দিচ্ছে তৃণমূল! কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী বক্তব্যে অস্বস্তিতে দল

এতদিন তৃণমূল দলের অভ্যন্তরে দুষ্কৃতীদের সম্পর্কে অভিযোগ জানিয়ে এসেছে বিরোধীদল। এবার দলের অভ্যন্তরে থেকেই এক তৃণমূল নেতা তৃণমূলের দলীয় দুষ্কৃতীদের কথা স্বীকার করে নিলেন। মালদা তৃণমূল নেতা কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী এদিন তৃণমূলের সঙ্গে দুষ্কৃতীদের আঁতাতের সম্পর্কে বিস্ফোরক বয়ান দিয়েছেন। রবিবার তিনি অভিযোগ করেন, তৃণমূল দুষ্কৃতীদের দলে জায়গা করে দিচ্ছে।

তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী এদিন আরো বলেছেন, সমাজবিরোধীরাই নিজেদের বাঁচাতে তৃণমূল দলে নাম লেখাচ্ছে। এদিকে তৃণমূলও তাদের জায়গা করে দিচ্ছে। এতে কার্যত দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে। অবিলম্বে এই সমাজবিরোধীদের দল থেকে বহিষ্কার করা উচিত বলে দাবি করেছেন তিনি।

উল্লেখ্য গত শনিবার মালদার বৈষ্ণবনগরের বখরাবাদ গ্রাম পঞ্চায়েতের দৌলতপুরে জাল নোট পাচারকারীদের একটি চক্র ধরতে যায় কুম্ভিরা ফাঁড়ির পুলিশ। এদিকে অভিযুক্তদের পুলিশভ্যানে তোলার সময় কুম্ভিরা থানার ওসিসহ অন্য পুলিশ কর্মীদের উপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা। এতে ওসিসহ দুজন পুলিশ আধিকারিক এবং একজন সিভিক ভলেন্টিয়ার আহত হয়েছেন। ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত এলাকা।

পুলিশ এরপর তদন্ত চালিয়ে গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূলের সদস্য সিমা বিবিকে এই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে গ্রেপ্তার করেছে। তার স্বামী তৃণমূল নেতা হাবিবুর রহমানকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তৃণমূল অবশ্য অভিযুক্তদের সঙ্গে দলের সম্পর্ক অস্বীকার করেছে। তবে দলের নেতা কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী বক্তব্য কার্যত তৃণমূলের অস্বস্তি বাড়লো।