আজ জানব পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানশালির সাফল্যর কাহিনী

8
আজ জানব পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানশালির সাফল্যর কাহিনী

বলিউড ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানশালি। ১৯৯৬ সাল থেকে চলচ্চিত্র জগতে তাঁর যাত্রা শুরু হয়। এই দীর্ঘ ২৫ বছরে ৯ টি ছবি পরিচালনা করেছেন বানশালি, যা তাঁকে ধীরে ধীরে বলিউডের অন্যতম সেরা তথা প্রথম সারির পরিচালকের তকমা দিয়েছে। যদিও অন্য সবার মতো এই সাফল্য তাঁর জীবনে একদিনে আসেনি।

দিনের পর দিন দিন ব্যর্থ হয়েছেন। তবুও মুখ বুজে পড়ে থেকেছেন কর্মক্ষেত্রে। অদম্য জেদ ছিল তাঁর। আর এই অদম্য জেদই তাঁর মাথায় শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট পড়িয়েছে। এখন তিনি দেশের অন্যতম সফল পরিচালক। তাঁর বাবা নবিন বনশালি ছিলেন চলচ্চিত্র প্রযোজক। কিন্তু প্রযোজক হিসেবে নবীন নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারেননি। ক্রমাগত ব্যর্থ হয়েছেন। আর তাঁর এই অসফলতা বানশালির গোটা পরিবারকে নিয়ে এসেছিল মুম্বইয়ের চওলে।

অ্যালকোহলে চূড়ান্ত মাত্রায় আসক্ত হয়ে পড়েন। শোনা যায় সেসময় তাদের অবস্থা এতটাই খারাপ হয়েছিল যে জামাকাপড় সেলাই করে সংসার চালাতেন সঞ্জয়ের মা লীলা। পরিবারের এই অসহায় অবস্থার জন্য সেসময় সঞ্জয়ের বাবা নবীন চেয়েছিলেন তাঁর ছেলে যেন তাঁর মতো ফিল্মের জগতে না আসেন। কিন্তু ছোট থেকেই সঞ্জয়ের মনে জেদ চেপে গিয়েছিল তিনি হিন্দি ছবির হাত ধরেই কিছু করে দেখাবেন। তাই ইন্ডাস্ট্রিতে কিছুদিন কাজ করার পর যে দিন টাইটেল কার্ডে নাম যাওয়ার পালা এল সেদিন নিজের নামের পাশে নিলেন মা লীলা বানশালির পরিচয়।

বাবা নবীন বানশালির পরিচয় থেকে নিজেকে বিরত রেখে সেদিন থেকেই মায়ের পরিচয় নিয়ে সঞ্জয় বানশালি হয়ে উঠলেন ‘সঞ্জয় লীলা বানশালি’। ফিল্মি কেরিয়ার শুরু করার আগে সঞ্জয় পুণের এফটিআইআই থেকে পড়াশোনা করেন। সেখান থেকে উত্তীর্ণ হওয়ার পরে বিধুবিনোদ চোপড়ার সঙ্গে কাজ করেন সহকারী পরিচলক হিসেবে। এভাবেই ধীরে ধীরে সফল হয়ে ওঠেন সঞ্জয় লীলা বানশালি।