ভ্যাকসিন নিয়ে আজ প্রত্যেক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে বসতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী

5
ভ্যাকসিন নিয়ে আজ প্রত্যেক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে বসতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী

এবার হয়তো করোনা পরিস্থিতির কিছুটা হলেও অবসান ঘটতে চলেছে, ইতিমধ্যে ড্রাগ কন্ট্রোলার জেনারেল অফ ইন্ডিয়ার তরফ থেকে ভারতে টিকা করনের জন্য দুটি ভ্যাকসিন অনুমোদন দেওয়া হয়েছে যার মধ্যে একটি সেরামের তৈরি কোভিশিল্ড ও ভারত বায়োকেটেকের তৈরী কোভ্যাক্সিন। এই অনুমোদনের পরে পরেই প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছিলেন আগামী ১৬ ই জানুয়ারি থেকে ভারতে শুরু হবে টিকাকরণ।

আর সেই নিয়েই আজ সোমবার প্রত্যেক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে বসতে চলেছেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী দের মতামত গ্রহণ করবেন এবং সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়ে এই টিকা করন প্রক্রিয়া চালু করা হবে বিভিন্ন রাজ্যে। তাছাড়া এই টিকাকরণ নিয়ে কেন্দ্রের কি নিজস্ব সিদ্ধান্ত রয়েছে সেটাও জানাবেন প্রধানমন্ত্রী নিজে।

করোনা পরিস্থিতির পরের থেকেই প্রধানমন্ত্রী দফায় দফায় বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে এই ভার্চুয়াল বৈঠক করেছে। সমস্ত ব্যাপার খতিয়ে দেখার জন্য এই বৈঠক। তাছাড়া বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী দের কি মতামত সেই সমস্ত জানতেই এর আগেও বৈঠক হয়েছে। তবে গত শনিবার এক বিশেষজ্ঞ কমিটির সাথে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক করেছেন আর সেখানে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে আগামী ১৬ জানুয়ারি থেকে দেশে শুরু হবে টিকাকরণ। যা কিনা দেশে তৈরি করবে একটি মাইলস্টোন।

ইতিমধ্যেই অবশ্য প্রত্যেক রাজ্যেই ভ্যাকসিনের ড্রাইরান চালিয়েছে কেন্দ্র। সবার প্রথমে এই সাহসী ডাক্তার স্বাস্থ্য কর্মী এবং ফ্রন্ট লাইন এর সমস্ত কর্মীদের এই ভ্যাকসিনের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। প্রথম পর্যায়ে মোট 30 কোটির ভ্যাকসিন দেওয়া হবে, যার মধ্যে প্রথমেই ডাক্তার স্বাস্থ্যকর্মীরা এরপরে ফ্রন্টলাইনে অর্থাৎ পুলিশ তারপরে কোমর্বিডিটি যুক্ত মানুষদের এই টিকা করন করা হবে। গতকাল প্রধানমন্ত্রী বিভিন্ন রাজ্যের সমস্যা জানতে চেয়ে রাজ্যের আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। আজকের বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বিশদ আলোচনা করা হবে বলে জানা গেছে। ইতিমধ্যে এই টিকা করনের জন্য তৈরি করা হয়েছে একটি নেটওয়ার্ক যার নাম কোউইন।