দু’মাস ধরে নিখোঁজ এক সাংবাদিকের খোঁজ মিলল এবার

81
দু'মাস ধরে নিখোঁজ এক সাংবাদিকের খোঁজ মিলল এবার

উহানের অবস্হা যখন খুবই খারাপ ছিল, তখন উহানের সিটিজেন্স সংবাদ মাধ্যমের একটি সংবাদিক চীনের বিভিন্ন অবস্হা তুলে ধরেন।ভিডিও, অডিওর মাধ্যমে। আর সেটা চীন সরকারের কাছে খবর চলে গেলেই লি জেহুয়াকে নেক ভাবেই শাসানো হয়, তিনি যেসব করছেন, তার বন্ধ করার জন্য। কিন্তু তিনি তার কাজ চালিয়ে যায় ও জানায় তিনি মানুষকে সত্যিটা জানাবেই।

তারপরেই তার কোনো খোঁজ পাওয়া যায় না। কিন্তু এবার তার খোঁজ পাওয়া গেলে। কোথায় তিনি নিরুদ্দেশ হয়ে গিয়েছিলেন ,তার চেষ্টা করা হয়। তাকে টানা ২ মাসের পর আবার খুঁজে পাওয়া গেল। অনেকেই অনেক ধরনের কথা বার্তা বলতে থাকে ,সরকারের সম্পর্কে।

এই নিরুদ্দেশ হওয়া সাংবাদিক তিনি আগে জানায় ,যে তাকে অনেকবার শাসানো হয়েছে ,সাথে অনেকবার পিছা করাও হয়েছে, কয়েকবার তাকে একটি সাদা গাড়ি পিছা করত। এরপরে পুলিশও তার পিছনে লেগেছিল। কিন্তু তারপর ২ মাস, তার কোনো খোঁজ পাওয়া যায় নি। এবার সবার সামনে এসে তিনি জানালেন , তাকে একটি জায়গায় আটক করে রাখা হয়েছিল।

আর তারপরে তিনি হুবেই প্রদেশের এক জায়গায় কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। আসলে তিনি অনেক স্পর্শকাতর জায়গায় গিয়েছেন বলে, তাকে কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। তাই তিনি কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। কিন্তু অনেক সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, এটা সত্যি না। এরমধ্যেও আছে ভেজাল। কারণ হয়তো সেই সংবাদিক চাটে পরেই এইসব বলছে।

এদিকে আরো কয়েকজন সাংবাদিক নিখোজ, কারণ তারাও এমন কিছু তথ্য প্রকাশ্যে এনেছিল যা ,কোনোভাবেই চিন সরকার আনতে চাইছিল না। চেন কোয়েশি নামে এক সাংবাদিক এখনও পর্যন্ত নিরুদ্দেশ। ৭৫ দিন থেকে তিনি নিরুদ্দেশ।।