এবার দলত্যাগিদের মত দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন তৃণমূল নেত্রী শতাব্দী রায়

5
এবার দলত্যাগিদের মত দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন তৃণমূল নেত্রী শতাব্দী রায়

আসন্ন একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে রাজ্য জুড়ে এখন শুধুই দল বদলের রাজনীতি চলছে। সে দলেই কি ভাসবেন বীরভূমের তৃণমূল নেত্রী শতাব্দী রায়? সম্প্রতি তার ফেসবুকের একটি পোস্ট থেকে এমনটাই আভাস পাওয়া যাচ্ছে! ফেসবুকের ওই পোস্টটি থেকে মনে হচ্ছে দলের বিরুদ্ধে অন্যান্যদের মতো তারও অভিযোগ কিন্তু কিছু কম নয়! আজ সোশ্যাল সাইটে নিজের যে বক্তব্য তিনি তুলে ধরেছেন, তাতে রাজনৈতিক মহলে জোর জল্পনা শুরু হয়েছে।

তৃণমূল দল থেকে যারা ইতিমধ্যেই বিজেপি শিবিরের দিকে পা বাড়িয়েছেন তাদের প্রত্যেকেরই কমবেশি অভিযোগ, দলে থেকে তারা কাজ করতে পারছেন না। তাদের কাজ করতে দেওয়া হয় নি। শতাব্দীর অভিযোগও কমবেশি একই। জনসাধারণের কাছে তার অভিযোগ, তিনি চান সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে যেতে। কিন্তু দলের মধ্যে থেকে “কেউ কেউ” চাইছেন না শতাব্দী সাধারণ মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ করুন!

ফেসবুকে “শতাব্দী রায় ফ্যান’স ক্লাব” পেজেই এমনটা লিখেছেন শতাব্দী। তিনি আরও বলেছেন, দলীয় কর্মসূচির খবর গুলি তাকে দেওয়া হয় না। যে কারণে তিনি সাধারণের কাছে পৌঁছাতে পারেন না! তবে নতুন বছরে তার পরিকল্পনা ভিন্ন। তিনি ঠিক করেছেন, নতুন বছরে এমন কিছু সিদ্ধান্তটিই নিবেন যাতে সাধারণের কাছে পৌঁছানো যায়। এই সিদ্ধান্তটি কি, তা এখনই খোলসা করেননি বীরভূমের এই নেত্রী।

শতাব্দী রায়ের বক্তব্য অনুসারে, তার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানার জন্য আগামী ১৬ই জানুয়ারি, শনিবার দুপুর দুটো পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। তার এই বক্তব্য থেকে রাজনৈতিক মহলে জোর তরজা শুরু হয়েছে। অনেকে ধরেই নিচ্ছেন, বীরভূমের এই তৃণমূল নেত্রীও অন্যান্যদের মতোই দলবদলে সিদ্ধান্তই নিতে চলেছেন। শেষমেষ তিনি কি সিদ্ধান্ত নেন, তা জানার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে রাজনৈতিক মহল।