এবার আত্মনির্ভর প্রকল্পে দেশীয় প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে ভারতেই তৈরি হবে সুপারকম্পিউটার

8
এবার আত্মনির্ভর প্রকল্পে দেশীয় প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে ভারতেই তৈরি হবে সুপারকম্পিউটার

প্রধানমন্ত্রীর আত্মনির্ভর ভারত প্রকল্পের আওতায় কার্যত দেশীয় প্রযুক্তির পালে হাওয়া লেগেছে। ২০২১ সালের মধ্যেই সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে সুপারকম্পিউটার বানানোর পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে ভারত। সুপার কম্পিউটিং নেটওয়ার্কের বিস্তার এবং বিনিয়োগের উপর জোর দিচ্ছে ভারত, যার সমস্ত প্রক্রিয়া শুরু হবে আগামী বছর থেকে।

উল্লেখ্য, ভারতের “ন্যাশনাল সুপারকম্পিউটিং মিশন” এর আওতায় ভবিষ্যতে দেশের বাইরে উন্নত প্রযুক্তির যে সমস্ত কম্পিউটার পাওয়া যায় সেগুলিকে দেশেই উৎপাদন করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় সরকারি সংবাদমাধ্যম ডিডিনিউজ এর রিপোর্ট অনুযায়ী, পড়াশোনা এবং গবেষণার ক্ষেত্রে কম্পিউটারের চাহিদা পূরণ করার জন্যে ভারতে কম্পিউটার নেটওয়ার্ক সিস্টেমের বিস্তার ঘটানো হচ্ছে।

পড়াশোনার পাশাপাশি যাতে প্রযুক্তির বিভিন্ন খাতে যেমন, তৈল উত্তোলন, বন্যার পূর্বাভাস, আবহাওয়ার পূর্বাভাস, জিনোমিক্স এবং ওষুধ উৎপাদনের কাজে এই সিস্টেম ব্যবহার করা যায় তার জন্য এখন থেকেই প্রস্তুতি শুরু করেছে ভারত। বেশ কয়েকটি পর্যায়ে এনএসএম তাদের এই সুপার কম্পিউটিং নেটওয়ার্কের বিস্তার ঘটানোর পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। যার মধ্যে প্রথম পর্যায়ের কাজ সম্পূর্ণ হয়েছে।

দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ আগামী বছরের এপ্রিল মাসের দিকে সম্পন্ন হবে বলে মনে করা হচ্ছে। এই পর্যায়ে সারাদেশে সুপার কম্পিউটিং নেটওয়ার্কের ক্ষমতা ১৬ পেটাফ্লপ পর্যন্ত বাড়ানো হবে বলে জানা গেছে। ২০২১ সালের জানুয়ারি মাস থেকে তৃতীয় পর্যায়ের কাজ শুরু করা হবে। এনএসএম এর এই পরিকল্পনায় সহায়তা করছে “মিনিস্ট্রি অফ ইলেকট্রনিক্স এন্ড আইটি”, “ডিপার্টমেন্ট অফ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি”, “সেন্টার ফর ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড অ্যাডভান্সড কম্পিউটিং” এবং “পুনে এন্ড ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স”।