এবার কৃষক সংগঠন গুলিকে আলোচনায় বসার আহ্বান জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ

10
এবার কৃষক সংগঠন গুলিকে আলোচনায় বসার আহ্বান জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ

কেন্দ্রের প্রস্তাবিত নতুন কৃষি আইন নিয়ে কৃষকদের ক্ষোভ ক্রমশই মাত্রা ছাড়াচ্ছে। বিক্ষোভকারীরা এবার বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করতে সরাসরি দিল্লির রাস্তায় ধর্ণা দিচ্ছেন। পাঞ্জাব, মহারাষ্ট্র, হরিয়ানা, উত্তরপ্রদেশসহ উত্তর ভারতের প্রতিটি রাজ্যের কৃষকেরা একজোট হয়ে কেন্দ্রীয় কৃষি আইন ২০২০ এর প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। এমতাবস্থায় পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝে কৃষকদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে উদ্যোগী কেন্দ্র।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সম্প্রতি কৃষক সংগঠন গুলিকে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনায় বসার আহ্বান জানালেন। উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমার আগেই আগামী ৩রা ডিসেম্বর কৃষক সংগঠনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনায় বসার কথা ঘোষণা করেছিলেন। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও কৃষকদের বিক্ষোভ দূর করতে আলোচনার পথই বেছে নিলেন। তিনিও আগামী ৩রা ডিসেম্বর কৃষক সংগঠনগুলিকে আলোচনায় অংশগ্রহণ করার আহ্বান জানিয়েছেন।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এদিন একটি বক্তব্যে জানিয়েছেন, ভারত সরকার দেশের কৃষকদের সমস্ত অভিযোগ, সমস্যা, চাহিদা সম্পর্কে জানতে আগ্রহী। কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী আগামী ৩রা ডিসেম্বর যে বৈঠকের আয়োজন করেছেন সেই বৈঠকে কৃষকদের আলোচনায় অংশগ্রহণ করার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে। এই মর্মে তিনি জানিয়েছেন, ভারত সরকার ওই দিনের বৈঠকে কৃষকদের সঙ্গে সবরকম আলোচনা করতে প্রস্তুত আছেন।

উল্লেখ্য, সংসদের বাদল অধিবেশন কেন্দ্রে প্রস্তাবিত নতুন কৃষি বিল যখন পেশ করা হয় তখন থেকেই বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি এই বিলের বিরোধিতা করতে শুরু করে। তাদের দাবি, নতুন প্রস্তাবিত কৃষি বিল কৃষকদের স্বার্থ বিরোধী। বিরোধীদের প্রবল বিক্ষোভের মধ্যেই রাষ্ট্রপতি স্বাক্ষর পেয়ে কৃষি বিল নতুন কৃষি আইনে পরিণত হয়। এর পরেই কৃষকরা জাতীয় স্তরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। সেই বিক্ষোভের আঁচ এবার রাজ্যের গণ্ডি পেরিয়ে দিল্লিতে পৌঁছেছে। আলোচনার মাধ্যমেই সমস্যার সমাধান করতে আগ্রহী কেন্দ্র।