এবার দলকে সর্বভারতীয় স্তরে পৌঁছে দিতে প্রস্তুতি শুরু করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

15
এবার দলকে সর্বভারতীয় স্তরে পৌঁছে দিতে প্রস্তুতি শুরু করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

বিপুল ভোটে জয় যুক্ত হওয়ার পর এবার লোকসভা নির্বাচন। ইতিমধ্যেই দলকে সর্বভারতীয় স্তরে পৌঁছে নিয়ে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত হতে শুরু করে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই কাজে তার সঙ্গে ছায়াসঙ্গী হয়ে রয়েছেন সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। একুশে জুলাই থেকেই পরবর্তী লক্ষ্যে সাফল্য অর্জন করার জন্য জোরালো পদক্ষেপ নিতে শুরু করে দিয়েছেন তৃণমূল শিবির। এই প্রথমবার বাংলার গণ্ডি পেরিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কন্ঠ পৌঁছে যাবে তামিলনাড়ু গুজরাট এবং ত্রিপুরাতে।

এবারে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাষণ সিংহভাগ জুড়ে থাকবে শুধুমাত্র বিজেপি বিরোধিতা। গেরুয়া বিরোধী মন্তব্য করেই মানুষের আরো কাছাকাছি পৌঁছে যাবার চেষ্টা করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। চারিদিকে শুধু ছড়িয়ে দেওয়া হবে সবুজের আভা।

চলতি বছরের বিধানসভা নির্বাচনে জয় যুক্ত হওয়ার জন্য ব্যাপক পরিশ্রম করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নির্বাচনের কাজে কঠোর পরিশ্রম করতে দেখা গিয়েছিল অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কেও। বিপুল ভোটে জয় যুক্ত হওয়ায় জন্য তৃণমূল কংগ্রেসের সমস্ত কর্মীদের কঠোর পরিশ্রমের মূল্য তারা পেয়েছেন। এবার একুশের চ্যালেঞ্জকে সাদরে গ্রহণ করার পর চব্বিশের দিকে এগোতে শুরু করে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বর্তমান সময়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এর লক্ষ্য, পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত এলাকায় এবং সমস্ত জেলায় শুধুমাত্র মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তৃণমূল কংগ্রেসের নাম উচ্চারিত হতে শুনতে পাওয়া যাবে। দেশের কোনায় কোনায় ছড়িয়ে দিতে হবে তৃণমূল কংগ্রেসের নাম। আপাতত সেই দিকেই লক্ষ্য করে এগিয়ে চলেছেন সম্পূর্ণ তৃণমূল কংগ্রেস শিবির।