কিম কার্দাশিয়ানের হোটেল রুম থেকে কোটি টাকা মূল্যের গয়না নিয়ে চম্পট দিলো ডাকাতরা

15
কিম কার্দাশিয়ানের হোটেল রুম থেকে কোটি টাকা মূল্যের গয়না নিয়ে চম্পট দিলো ডাকাতরা

আন্তর্জাতিক মডেল কিম কার্দাশিয়ানের হোটেল রুমে ঢুকে তার কাছ থেকে প্রায় আশি কোটি টাকা মূল্যের গয়না নিয়ে চম্পট দেয় ডাকাতরা। ঘটনাটি ঘটেছিল ২০১৬ সালে। ১২ জন প্রৌঢ় ব্যক্তি পুলিশের বেশে প্যারিসের একটি নামকরা হোটেলে গিয়ে লুটপাট করেন। এই হোটেলে ছিলেন কিম কার্দাশিয়ান। মূলত তাকে লক্ষ্য করেই ডাকাতরা হোটেলে এসেছিল।

উল্লেখ্য ডাকাতদের বয়স ছিল ৬০ বছরের বেশি। পুলিশের বেশে তাদের দেখে হোটেল রুমের দরজা খুলতেই ঘটে যায় বিপদ। ছদ্মবেশ নিয়ে ডাকাতরা এসেছিল কিমের গয়না লুট করতে। সেই দলের প্রধান ছিলেন ইউনিস আব্বাস। তার নির্দেশে কিমকে হাত-পা বেঁধে বাথটবে ফেলে রাখা হয়। সেদিন ঘরে ছিলেন তার সেক্রেটারিও।

বিপদ বুঝে কিম আপৎকালীন নম্বরে ফোন করে দেন। ডাকাতরা তাড়াহুড়ো করে কিমের থেকে যাবতীয় গয়না খুলে নিয়ে চম্পট দেয়। কিন্তু হোটেল থেকে বের হতেই তারা পুলিশের কাছে ধরা পড়ে যায়। এই গয়নার মধ্যে কিমের হাতের আঙুলে থাকা কুড়ি ক্যারেটের হীরের আংটিও ছিল। যার মূল্য ছিল প্রায় ৩১ কোটি টাকা।

ডাকাত দলের প্রধান দাবি করেন এই ঘটনার জন্য কিম কার্দাশিয়ান নিজেই দায়ী ছিলেন। তিনি সবসময় সোশ্যাল মিডিয়াতে তার ছবি আপলোড করতেন। তিনি কখন কি গয়না কিনছেন সেই গয়নার ছবি সকলকে দেখাতেন। এই ছবি দেখেই তারা জানতে পারেন কিম কোথায় আছেন। তারপর তারা ডাকাতি করতে পৌঁছে যান প্যারিসের সেই হোটেলে। ঘটনায় বেশ ভয় পেয়ে গিয়েছিলেন কিম।