সর্বদাই একে অন্যের দিকে আঙ্গুল তুলেছেন এই দুই সঙ্গীতশিল্পী

5
সর্বদাই একে অন্যের দিকে আঙ্গুল তুলেছেন এই দুই সঙ্গীতশিল্পী

৯০ দশকে একের পর এক হিট গান গেয়ে সকলকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন অনুরাধা পাড়োয়াল এবং অলকা ইয়াগনিক। কখনো একজনের কেরিয়ার গ্রাফ উপরের দিকে উঠেছে আবার কখনো অন্যজনের থমকে গিয়েছে। কখনো আবার হয়েছে উল্টো। কিন্তু কখনো একে অন্যের কাছাকাছি আসেনি তারা। সর্বদাই একে অন্যের দিকে আঙ্গুল তুলেছেন এই দুই সঙ্গীতশিল্পী।

প্রায় একই সময় ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন অলকা এবং অনুরাধা। প্রতিদ্বন্দ্বিতা একই সময় শুরু হয়েছে। বহুবার অলকা বলেছিলেন, তার গান ছিনিয়ে নিয়েছেন অনুরাধা। সেই নিয়ে সেই সময় শোরগোল হয়েছিল বিস্তর। লতা মঙ্গেশকর তখন ছিলেন খাতির মধ্য গগনে। ঠিক সেই সময় অনুরাধা লড়াই শুরু। শোনা যায় একের পর এক যে গানগুলো তিনি গিয়েছিলেন সেগুলি পড়ে লতাকে দিয়ে গাওয়ানো হয়।

ধীরে ধীরে লতা যুগের ইতি ঘটতে শুরু করে। লতা যে সকল সুরকারের সঙ্গে গান গাইতেন তাদের সকলের মৃত্যু হয়ে যায়। অনেকে বয়সের কারণে কাজ বন্ধ করে দেন। সেই সুযোগে বলিউডে ধীরে ধীরে নিজের জায়গা টাকা করে নেন অনুরাধা। ৯০ এর দশকের শুরুর দিকে হিন্দি ছবির জগতের গানের ৭ শতাংশ ছিল টি সিরিজের। বলাই বাহুল্য অনুরাধার ক্যারিয়ারে এই সংস্থার বড় অবদান ছিল।

গুলশান কুমারের সঙ্গে একটি চুক্তি সই করেন যে চুক্তি অনুযায়ী, ওই সংস্থা ছাড়া আর কোথাও গান করতে পারবেন না তিনি। আর ওই সংস্থার সব গানই অনুরাধা গাইবেন। কোন সুরকার অন্য কোন গাড়ি কাকে দিয়ে গান গাওয়াতে চাইলে তখন ওই সমস্ত জানিয়ে দিত, অনুরাধা কে দিয়েই গাওয়াতে হবে। দিল সিনেমার গান প্রথমে অলকা দিয়েছিলেন কিন্তু তারপর সেটা জানানো হয় অনুরাধাকে দিয়ে। অভিযোগ, অলকা কে এই বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি। অনুরাধা ও কিছু জানাননি অলকাকে।

দিল ছবিতে মাধুরী লিপি অনুরাধা গান হিট হয়। এরপর মাধুরী লিপে গান গাওয়ার জন্য সুরকাররা সরাসরি বেছে নেন অনুরাধাকে। অন্যদিকে অল কাউকে টিপস-ভেনাস সংস্থার সঙ্গে কাজ করতেন। মাটি আঁকড়ে পড়েছিলেন তিনিও। ইতিহাস ছবিতে ঘটে যায় আরো একবার একই কাণ্ড। সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন অজয় দেবগন এবং টুইংকেল খান্না। সিনেমার সব গান গাওয়ানো হয়েছিল অলকাকে দিয়ে। পরে অনুরাধা কে দিয়ে তা গাওয়ান হয়।

এক সময় অনুরাধা পুরোপুরি সিনেমার গান ছেড়ে দিয়ে ভজনে মন দেন। ১৯৯৭ সালের একটি সাক্ষাৎকারে অলকা বলেন, বারবার অনুরাধা আমার গান ছিনিয়ে নেন। দিল এবং ইতিহাস সিনেমাতে একই কাজ করেছেন তিনি। বারবার একই যুক্তি দেন অনুরাধা। মাধুরী লিপি নাকি তার কণ্ঠ বেশি মানায়। এখন কি টুইংকেলের লিপেও ওর কন্ঠ বেশি মানায়?

তিনি বলেন, তিনি যখন ইন্ডাস্ট্রি ছেড়ে দিচ্ছেন তখনও একই কাজ করেছেন আমার সঙ্গে। আর যখন এমন করেন তখন আমি মুম্বাইতে ছিলাম না। আমাকে না জানিয়ে আমার গান ছিনিয়ে নিয়েছেন তিনি। আমাকে অনেক সময় বলা হতো অনুরাধার পরিবর্তে গান গাবার জন্য কিন্তু আমি কোনদিন এই কাজ করিনি। আমি এই ধরনের কাজ করি না

সংবাদমাধ্যম অনুরাধার মন্তব্য শুনতে চাইলে তিনি কোনো উত্তর দেননি। তবে টি সিরিজের সঙ্গে কাজ করতে আসা সংগীত পরিচালকদের নির্দেশ যখন মানতে শুরু করেন অনুরাধা ঠিক তখনই কাজ হারাতে শুরু করেন তিনি। একসময় বলিউড থেকে পুরোপুরি সরে যেতে বাধ্য হোন তিনি। তার জায়গা নিয়ে নেন অলকা।