ব্যাঙ্কের থেকেও বেশী সুদ মিলছে পোস্ট অফিসের এই তিনটি স্কিমে

8
ব্যাঙ্কের থেকেও বেশী সুদ মিলছে পোস্ট অফিসের এই তিনটি স্কিমে

ব্যাঙ্কের থেকেও বেশী সুদ মিলছে পোস্ট অফিসের এই তিনটি স্কিমে। সাধারণ মানুষ তাঁদের কষ্টার্জিত টাকা রাখতে চায় সবসময় সুরক্ষিত কোনো ক্ষেত্রে। সেই দিক থেকে ব্যাঙ্ক, পোস্ট অফিস, সরকারি স্কিম সব থেকে ভালো। কিন্তু যদি ব্যাঙ্কের থেকেও বেশী সুদ পাওয়া যায় পোস্ট অফিসে, তাহলে স্বাভাবিকভাবেই মানুষ সেই দিকেই ঝুকবে। তাই এবার জেনে নেওয়া যাক পোস্ট অফিসের তিনটি জনপ্রিয় স্কিমে।

কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে রয়েছে পোস্ট অফিস, তাই ভয়ের কোনো কারণ নেই। তাছাড়া পোস্ট অফিস গ্রামীণ ক্ষেত্রে পৌছে গেছে, যেট ব্যাঙ্ক হয়ত পৌছোতে পারে নি। মনে রাখতে হবে ব্যাঙ্কিং সিস্টেম কিন্তু দেশের সব জায়গায় তেমন ভাবে উন্নত নয়। মানুষ তাই বিশেষ করে সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষ পোস্ট অফিসের ওপরেই বেশী নির্ভর করে থাকে। জানা গেছে পোস্ট অফিসের বিভিন্ন স্কিমের সুদের হার ৭% এর বেশী।

সবার আগে কথা বলা যাক সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিম নিয়ে। এই স্কিমের সুবিধা হল এখানে সুদের হার ৭.৪%। এই স্কিম পোস্ট অফিসের সব থেকে জনপ্রিয় একটি স্কিম। আপনি যদি ১০,০০০ টাকা রাখেন তাহলে আপনার ত্রৈমাসিক সুদের পরিমাণ ডাড়াবে ১৮৫ টাকা। শুধু কি সিনিয়র সিটিজেন, আআগে হ্যা এই স্কিম কেবল সিনিয়র সিটিজেনের জন্যই।

এরপরে আসা যাক সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা নিয়ে। এখানেও পাওয়া যাবে অতিরিক্ত সুদের হার। এখানে সুদের হার ৭.৬%। যা সত্যি বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে অনেকটাই। তবে এই স্কিম কেবল কন্যা সন্তানের জন্যই। এখানে সর্বনিন্ম বিনিয়োগের পরিমাণ ২৫০ টাকা, সর্বোচ্চ দেড় লক্ষ।

পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড যাকে বলে পিপি এফ এটি একটি জনপ্রিয় স্কিম। যেখানে বার্ষিক সুদের হার ৭.১%। এই স্কিমে ৫০০ টাকা থেকে দেড় লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ করতে পারবেন।।