গরম চায়ের সঙ্গে একটু আদা মিশিয়ে খেলে সহজেই আটকানো যাবে এই আটটি রোগ

19
গরম চায়ের সঙ্গে একটু আদা মিশিয়ে খেলে সহজেই আটকানো যাবে এই আটটি রোগ

আদা অর্থাৎ জিনজার, যার অল্প একটু গুনে বেড়ে যায় রান্না র স্বাদ। সর্দি কাশির সময় সামান্য আদা র গুনে উপশম পাওয়া যায়। স্বাদে গন্ধে এবং গুণের দিক থেকে আদা খানিকটা সমসাময়িক হলুদ এবং এলাচের। আদা কেটে , অথবা গুড়ো করে রস বার করে খাওয়া যায়। তবে স্বাদ বাড়ানো ছাড়া অনেক ঔষধি গুণ রয়েছে আদার। গরম চায়ের সঙ্গে আদা মিশিয়ে খেলে অনেক উপকার পাওয়া যায়।

হার্ট ভালো রাখে এবং রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে: নিয়মিত আদা দিয়ে যদি চা পান করা যায়, তাহলে আমাদের হার্ট ভালো থাকতে পারে। এছাড়া রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে এই চা। এই চা রক্ত জমাট বাঁধা নিয়ন্ত্রণ করে কোলেস্টেরল কম করে এবং রক্ত সঞ্চালন আগের থেকে বৃদ্ধি করে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তোলা: আদাতে এমন অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে যা,আমাদের রোগ-প্রতিরোধক্ষমতা অনেকটাই বাড়িয়ে দেয়। এছাড়াও আমাদের স্ট্রেস অনেক কমিয়ে দেয় আদা চা। গরম আদা চা পান করলে অনেকক্ষণ পেট ভর্তি থাকে। তাই আদা চা পান করলে অনেকটাই শারীরিক ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে। এছাড়া ক্যান্সারের জন্য কেমোথেরাপি করলে অথবা গর্ভবতী অবস্থায় মর্নিং সিক থাকলে আদা চা পান করতে হয়।

মাথা ঘোরা কম হয়: প্লেনে ট্রাভেল করলে অথবা পাহাড়ি জায়গায় গেলে অনেকেরই মাথা ঘোরা সমস্যা থাকে, তখন যদি আদা চা পান করেন, তাহলে মাথা ঘোরা অনেকটাই কমে যায়।

ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে থাকে: যাদের ডায়াবেটিস থাকে, তারা প্রতিদিন আদা চা পান করুন। আধার মধ্যে উপস্থিত বায় একটিভ উপাদান এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট মস্তিষ্কের ইনফ্লামেশন রোধ করে মস্তিষ্ক সচল এবং সক্রিয় রাখে।

বদহজমের সমস্যা দূর করে দেয়: আমরা মাঝে মাঝেই বদ হজমের সমস্যায় ভোগেন। এই সমস্যা দূর করার জন্য আপনি সেবন করতে পারেন আদা চা। অনেক সময় মহিলারা ঋতুস্রাবের সময় তলপেটে ব্যথা পান। এই ব্যথা থেকে মুক্তি পাবার জন্য আপনি পান করতে পারেন আদা চা। তাছাড়া গরম জলে আদা দিয়ে সেই জলে তোয়ালে ভিজিয়ে তলপেটে ধরলেও ব্যথা অনেকটা কমে যায়।

স্ট্রেস কম করে: আমরা অনেকেই কমবেশি মানসিক অবসাদে ভুগে থাকি। ব্যস্ত কর্মজীবন এবং সাংসারিক চাপ থাকার ফলে আমাদের মানসিক অবসাদের শিকার হতে হয়। আদার করা গন্ধ এবং স্বাদ সেই টেনশন দূর করে দেয়।

ক্যান্সার প্রতিরোধ করে: প্যানক্রিয়াস এবং কোলন ক্যান্সারে খুবই ভালো কাজ করে এই আদা চা।

রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি: আদা চা তে থাকে অ্যামিনো এসিড, ভিটামিন এবং মিনারেল। এগুলি রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। ধমনী চারিপাশে মেদ জমতে দেয়না। এছাড়া পেইন কিলার হিসেবে কাজ করে এই আদা চা।