প্রার্থী তালিকায় নাম নেই, দেখুন কি প্রতিক্রিয়া দিলেন দেবাংশু ভট্টাচার্য

42
প্রার্থী তালিকায় নাম নেই, দেখুন কি প্রতিক্রিয়া দিলেন দেবাংশু ভট্টাচার্য

আসন্ন একুশের বিধানসভা নির্বাচনী লড়াইয়ে দিদির সৈনিক হিসেবে প্রথম সারি থেকে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন তৃণমূলের যুবনেতা দেবাংশু ভট্টাচার্য। দেবাংশুর “খেলা হবে” স্লোগান এবং তার নিজের বাঁধা কবিতা, গানে মুখরিত রাজ্য রাজনীতি। সেই দেবাংশুই বাদ পড়েছেন তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা থেকে। এই নিয়ে সোশ্যাল সাইট ভরে উঠেছে মিম এবং ট্রোলের বন্যায়! একুশের সম্ভাব্য প্রার্থী তালিকা থেকে যারা বাদ পড়েছেন, তাদের মধ্যে অনেকেই দলীয় সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছেন।

তবে দেবাংশর মুখে কিন্তু এই নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে কোনো কথা শোনা যায় নি। তিনি বরং জানাচ্ছেন সম্পূর্ণ উল্টোটাই! রাজনীতিতে লংটার্মের জন্য খেলতে আসেন নি দেবাংশু। বরং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বাংলার মসনদে ফের একবার বসানোর লড়াইয়ে শামিল হতে চেয়েছেন দেবাংশু। তিনি জানাচ্ছেন তার লক্ষ্য এখন শুধুই দিদিকে জেতানো। কাজ শেষ হতেই রাজনীতি থেকে বিদায় নেবেন তিনি।

দেবাংশুর মন্তব্য অনুসারে, তিনি আগেই তৃণমূল সুপ্রিমোকে জানিয়েছিলেন তিনি বেশিদিন রাজনীতিকে থাকবেন না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মসনদে বসিয়েই “ঘরের ছেলে ঘরে ফিরবে”! দেবাংশু জানিয়েছেন আগামী ২রা মে ফল প্রকাশের পর মুখ্যমন্ত্রীর জয় উদযাপন করেই তিনি তার নিজের ব্যক্তিগত জীবন এবং ক্যারিয়ার সম্পর্কে ভাবতে আরম্ভ করবেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় তাকে কেন্দ্র করে যে মিম এবং ট্রোলের বন্যা বয়ে যাচ্ছে তার পরিপ্রেক্ষিতে দেবাংশুর জবাব, তাকে কোনো নির্দিষ্ট একটি কেন্দ্রে আবদ্ধ করে রাখতে চাননি মুখ্যমন্ত্রী। তার দায়িত্ব আরো বেশি। সারা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হয়ে প্রচারকার্য চালিয়ে যাবেন দেবাংশু। সংবাদমাধ্যমের কাছে দেবাংশুর এই সাক্ষাৎকারে স্বভাবতই রাজনৈতিক মহলে জোর জল্পনা শুরু হয়েছে। তাহলে কি একুশের লড়াইয়ের পর আর রাজনীতিতে দেখা যাবে না দেবাংশুকে? দেবাংশু জবাব থেকে অবশ্য সেই প্রশ্নই উঠছে।