সীমাবদ্ধতা নেই বিনিয়োগের! গ্যারান্টি সহ মিলবে রিটার্ন! দেখে নিন পোস্ট অফিসের এই বিশেষ স্কিম

10
সীমাবদ্ধতা নেই বিনিয়োগের! গ্যারান্টি সহ মিলবে রিটার্ন! দেখে নিন পোস্ট অফিসের এই বিশেষ স্কিম

সুরক্ষিত ভবিষ্যতের জন্য অনেকেই বিভিন্ন খাতে টাকা বিনিয়োগ করে থাকেন। গ্রাহকের টাকা যাতে সুরক্ষিত থাকে এবং তারা যাতে লাভজনক রিটার্ন পান তার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে রয়েছে একাধিক পরিকল্পনা। যারা ঝুঁকি নিতে চান, তাদের জন্য রয়েছে মিউচুয়াল ফান্ডের বন্দোবস্ত। তবে যারা গ্যারান্টি চান তাদের জন্য রয়েছে অন্যান্য ব্যবস্থা। এমনই একটি ব্যবস্থা রয়েছে পোস্ট অফিসে। যে খাতে বিনিয়োগ করলে গ্যারান্টি পাওয়া যায়।

পোস্ট অফিসের এই স্কিমের নাম রেকারিং ডিপোজিট বা আরডি। এক্ষেত্রে সবথেকে বড় সুবিধা হলো বিনিয়োগের অংকের কোনো সীমাবদ্ধতা নেই। আপনি পাঁচ বছরের জন্য বিনিয়োগ করতে পারেন। তবে মনে রাখতে হবে, সঠিক সময়ের মধ্যে যদি আরডির টাকা জমা দিতে না পারেন তাহলে পোস্ট অফিস কর্তৃপক্ষকে জরিমানা দিতে হবে। সে ক্ষেত্রে প্রতি মাসে মূল টাকার ১ শতাংশ জরিমানা কেটে নেয় পোস্ট অফিস।

৪ কিস্তির টাকা দিতে না পারলে অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়। কোনো কারণে অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে গেলে আবার দু’বছরের মধ্যে রিওপেনও করতে পারবেন আপনি। প্রতি মাসে মাত্র ১০০ টাকা দিয়েই এই খাতা খোলা যায়। এক্ষেত্রে আপনাকে প্রতি তিন মাস অন্তর টাকা জমা দিতে হয়। জমা পড়া টাকার উপর ৫.৮ শতাংশ হারে সুদ দেয় পোস্ট অফিস। এক্ষেত্রে অবশ্য কেন্দ্রীয় সরকার সুদের হার নির্ধারণ করে।

এই স্কিম থেকে আপনি এককালীন ১৬ লাখ টাকা পর্যন্ত পেতে পারেন। তার জন্য আপনাকে প্রতিমাসে ১০ হাজার টাকা বিনিয়োগ করতে হবে। তাহলে ১০ বছরের শেষে আপনার বিনিয়োগের পরিমাণ দাঁড়াবে ১৬,২৪,৪৭৬ টাকা।