খরচ বাচাতে সুগার ডেটিং এর দিকে ঝুকছে তরুণ প্রজন্ম

4
খরচ বাচাতে সুগার ডেটিং এর দিকে ঝুকছে তরুণ প্রজন্ম

করোনার প্রবাহের ফলে চারিদিক থেকে দেখা দিয়েছে নানা রকম আর্থিক মন্দা এবং তার সঙ্গেই বেড়ে গেছে বেকারত্বের সংখ্যা। এরকম সময়ে সকলেই কোন না কোন উপায়ে কিছুটা হলেও আয়ের রাস্তা খুঁজতে চায়। এরকমই একটি রাস্তা খুঁজে তরুণ প্রজন্মরা চলেছে একটি অ্যাপ এর দিক এবং সেটি হল সুগার ডেটিং অ্যাপ। আসুন একটু বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক যে সুগার ডেটিং অ্যাপ টা আসলে কি এবং কিভাবেই বা এর মাধ্যমে আয় হয়ে থাকে।

সূত্র ধরে খবর পাওয়া যায় যে এই সুগার ডেটিং ব্যাপারটি হলো সম্পর্ক স্থাপন এবং সেই সম্পর্কের মধ্যে থাকবে অর্থ এবং অন্যান্য আর্থিক দিক থেকে সুযোগ সুবিধা। যারা উপহার গ্রহণ করে তাদের বলা হত সুপার বেবি এবং যিনি উপহার দিয়ে সম্পর্ক তৈরি করতেন তাদের বলা হতো সুপার ড্যাডি বা মাম্মী।

অ্যাপটির ওয়েবসাইট থেকে যে তথ্য বেরিয়ে আসে তার থেকে জানা যায় যে এই অ্যাপ সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করা হয় মুম্বাইতে। এরপরে আছে দিল্লি ,পুনে, হায়দ্রাবাদ, কলকাতা সহ একাধিক জায়গা। এই অ্যাপটিকে সিকিং অ্যারেঞ্জমেন্টও বলা হয়ে থাকে প্রতিষ্ঠাতা বলেন যে বেশিরভাগ বেকার, এবং যাদের আর্থিক দিক থেকে চাপ আছে এবং যে সকল ছাত্র ছাত্রীরা টাকার অভাবে পড়াশোনা করতে পারছে না, তারা এই ধরনের অ্যাপের মাধ্যমে মাসে প্রায় ৩৫,০০০ টাকা আয় করে থাকে।

জানা যায় এই অ্যাপটি ২০০৬ সালে তৈরি করা হয় মালয়েশিয়ায়। এবং তারপর থেকেই এই অ্যাপটির জনপ্রিয়তা ক্রমশ বৃদ্ধি পেতে থাকে। এখন অনেকেই আয়ের পথ হিসেবে বেছে নিয়েছে । জানা যায় এই অ্যাপের মাধ্যমে তারা ঠিক কোন জিনিসটা পছন্দ করে সেই অনুযায়ী সম্পর্ক স্থাপন করা হয়।