চলতি বছরের শেষে আরো বিপদে পড়বে বিশ্ব, জানালো জ্যোতিষশাস্ত্রে পারদর্শী বিস্ময়কর কিশোর

96
চলতি বছরের শেষে আরো বিপদে পড়বে বিশ্ব, জানালো জ্যোতিষশাস্ত্রে পারদর্শী বিস্ময়কর কিশোর

করোনার আবহে নতুন করে আশঙ্কার কথা শোনালো জ্যোতিষশাস্ত্রে পারদর্শী কিশোর অভিজ্ঞ আনন্দ, সে ফের নতুন ভিডিও নিয়ে হাজির সোশ্যাল মিডিয়ায়, এবার তার মুখে উঠে এলো আরো বিস্ময়কর তথ্য যা শুনে আপনিও বেশ চিন্তায় পড়ে যাবেন। ইতিমধ্যে দেশজুড়ে দ্বিতীয় দফার লক ডাউন চলছে, এই লক ডাউন প্রক্রিয়া আগামী 3 রা মে পর্যন্ত চলবে, তবে যে হারে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে আদৌ মে মাসের 3 তারিখ লক ডাউন উঠবে কি না তা নিয়ে সন্দেহ থেকেই যায়, ফের একবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দিকে তাকিয়ে থাকবে গোটা দেশ, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। তবে লকডাউন ঘোষণা করায় অন্য সকল দেশের তুলনায় আমাদের দেশে এই ভাইরাসের তান্ডব অনেক কম তা স্বীকার করতেই হবে সকল দেশবাসীকে, আর্থিক দিক থেকে মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হলেও লক ডাউন মেনে নেওয়া ছাড়া কোনো উপায় নেই।

কিন্তু এই লক ডাউন চলাকালীন নতুন করে ভিডিও পোস্ট করেন কিশোর অভিজ্ঞ আনন্দ, এর আগেও সে করোনা নামক মহামারী নিয়ে ভিডিও পোস্ট করেছে। লক ডাউন উঠিয়ে দেবার পর দেশের আর্থিক অবস্থা কি হবে, মানুষ কতটা প্রভাবিত হবে ও করোনা নামক মহামারী কবে বিদায় নেবে তা নিয়ে ফের সে ফের নতুন ভিডিও আপলোড করেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যা রীতিমতো শোরগোল ফেলে দিয়েছে নেট দুনিয়ায়। সবথেকে আশ্চর্যের বিষয় হলো নতুন ভিডিওটিতে সে বলেছে চলতি বছরের শেষ থেকে নতুন বছরের মার্চ মাস পর্যন্ত মানব সমাজ নতুন করে বিপদের মুখে পড়তে পারে। এই আশঙ্কা প্রকাশ করেছে সে। তবে কি হতে পারে তা জানায় নি।


গ্রহের অবস্থান বিচার করেই সে নতুন তথ্য তুলে ধরেছে সকলের সামনে, নতুন ভিডিওটিতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর উপর জোর দিতে বলা হয়েছে, মানুষের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর কথা বলা হয়েছে। কৃষকদের জৈব পদ্ধতিতে চাষের কথা বলা হয়েছে, কলকারখানা বন্ধ থাকায় দূষণের মাত্রা অনেকটাই কমে গিয়েছে, বায়ুদূষণ প্রায় নেই বললেই চলে, ফলে শাক সবজি
খাওয়ার উপর জোর দিতে বলা হয়েছে, আরো বলা হয়েছে, শরীরে রোগকে প্রতিরোধ করার ক্ষমতা বৃদ্ধি পেলেই কোনো ভাইরাস এট্যাক করতে পারবে না মানব শরীরে, করলেও প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি থাকার ফলে মানুষের সাময়িক অসুবিধা হলেও কাউকে প্রাণে মরতে হবে না।

ভারত থেকে কবে বিদায় নেবে এই ভাইরাস সেটা জানাতে ভোলেনি সে, আগামী 29 শে মে থেকে ভাইরাসের দাপট ধাপে ধাপে কমতে থাকবে,তবে একবারে নির্মূল হবে না, জুন জুলাই মাসের আগে দেশে ভালো কিছু ঘটবে না। তবে এই সময়ের মধ্যে ভ্যাকসিন নিয়ে আশার আলো দেখায় সে। তবে মানুষকে সুষম খাবার খেতে বলে যে, যেসব খাবার খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে সেদিকে সকলকে নজর দিতে বলা হয়েছে।

তবে এত কিছুর মধ্যেও নতুন করে সতর্ক করলো সে, করোনা ভাইরাস পৃথিবীর বুক থেকে আস্তে আস্তে বিদায় নিলেও নতুন করে এমন কিছু ঘটবে পৃথিবীতে যা ফের মানব জাতিকে সংকটে ফেলবে, আর তার শুরু হবে চলতি বছরের 20 ই ডিসেম্বরের পর থেকে ও নতুন বছরের 31 শে মার্চের মধ্যে আবার খারাপ কিছু ঘটতে চলেছে বিশ্বজুড়ে। শুনুন এই বিস্ময়কর বালক ক বলেছে সকলের উদ্দেশ্যে।