ভবিষ্যতে আরো বড় মহামারীর সম্মুখীন হতে পারে বিশ্ব, সতর্ক করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অধিকর্তা

7
ভবিষ্যতে আরো বড় মহামারীর সম্মুখীন হতে পারে বিশ্ব, সতর্ক করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অধিকর্তা

করোনা জ্বরে আক্রান্ত পৃথিবী। কবে এই রোগ থেকে মুক্তি মিলবে তার কোনো নিশ্চয়তা নেই। বিভিন্ন রাষ্ট্রের তরফ থেকে ভ্যাকসিন নিয়ে আসার আলো দেখানো হলেও, এ পর্যন্ত সাধারণ মানুষের হাতে ভ্যাকসিন এসে পৌঁছায়নি। এই পরিস্থিতির মধ্যেই বিশ্ববাসীকে সতর্ক করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তরফ থেকে জানানো হলো, ভবিষ্যতে আরো বড় মহামারীর সম্মুখীন হতে পারে বিশ্ব। তার প্রস্তুতি এখন থেকেই নিয়ে রাখা দরকার।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ডিরেক্টর-জেনারেল টেড্রোস আধানম ঘেব্রিয়েসুস এ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে বলেছেন, পৃথিবীর ইতিহাস লক্ষ্য করলেই বোঝা যায়, মহামারীর ঘটনা অত্যন্ত স্বাভাবিক। অতীতে বারবার মহামারীর সম্মুখীন হয়েছে বিশ্ব। বর্তমানে যেমন করোনা মহামারী চলছে, তিনি ভবিষ্যতেও হয়তো করোনার থেকেও ভয়ঙ্কর মহামারীর মুখে পড়তে হতে পারে। তাই এখন থেকেই স্বাস্থ্য খাতে অধিক বিনিয়োগ করা প্রয়োজন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অধিকর্তা, আসন্ন বিপদের হাত থেকে রক্ষা পেতে, এখন থেকেই বিশ্বের সমস্ত দেশকে স্বাস্থ্যখাতে অধিক গুরুত্ব দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। তার মতে, যে কোন রাষ্ট্রের সামাজিক, অর্থনৈতিক এবং রাজনৈতিক সুস্থিরতার মূল ভিত্তি হলো সেদেশের জনগণের স্বাস্থ্য। বাসিন্দাদের স্বাস্থ্য যত উন্নত হবে, ততোই উন্নতি করবে সেই রাষ্ট্র। তাই, জনস্বাস্থ্য উন্নত করার লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে স্বাস্থ্য খাতে বিনিয়োগ বাড়ালে ভবিষ্যৎ সুস্থ এবং সমৃদ্ধ হবে।

উল্লেখ্য, বিশ্বজুড়ে করোনার এই ব্যাপক প্রভাবের কারণ হিসেবে, পৃথিবীর বহু দেশের অনুন্নত স্বাস্থ্য পরিকাঠামোকেই দায়ী করছেন বিশেষজ্ঞরা। পাশাপাশি, মহামারীর মোকাবিলায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ভূমিকা সম্পর্কেও প্রশ্ন তুলেছে আমেরিকা। এর আগে, সোয়াইন ফ্লু, জিকা ভাইরাস, পোলিও সংক্রমণ এবং দুই বার ইবোলা মহামারীর সংক্রমণের মুখে পড়েছিল বিশ্ব। তবে কোনো ক্ষেত্রেই পরিস্থিতি এত ভয়াবহ হয়ে ওঠেনি। পরিস্থিতি বিচার করে, হু এর অধিকর্তার সতর্কবাণী, ভবিষ্যতে আরও ভয়ংকর মহামারীর মুখে পড়তে পারে বিশ্ব।