রহস্যের জাল ক্রমশই বাড়ছে মারাদোনার মৃত্যু নিয়ে

7
রহস্যের জাল ক্রমশই বাড়ছে মারাদোনার মৃত্যু নিয়ে

ফুটবল দুনিয়ার ঈশ্বর মারাদোনার মৃত্যুর পর প্রায় ৬ মাস অতিক্রান্ত হয়েছে। মারাদোনার মৃত্যুতে শোকোস্তব্ধ ফুটবল অনুরাগীরা। তবে সাম্প্রতিক কালে মারাদোনার মৃত্যু সম্পর্কিত যে তথ্যটি জনসমক্ষে উঠে এলো তা দেখে আরো বেশি স্তম্ভিত হয়ে পড়েছেন নেটিজেনরা। মারাদোনার মৃত্যুর তদন্ত সংক্রান্ত রিপোর্টে উঠে এলো খুনের তত্ত্ব। ফুটবল দুনিয়ার ঈশ্বরকে খুন করেছিলেন তার চিকিৎসকেরা!

এমনই অভিযোগ দায়ের করেছেন মারাদোনার দুই কন্যা। মারাদোনার ব্যক্তিগত নিউরোসার্জন লিওপোল্ড লুপে, মনোবিদ অগাস্টিনা কসচভ এবং মনোবিজ্ঞানী কার্লোস দিয়াজসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করেছেন তারা। এদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, মারাদোনার শারীরিক পরিস্থিতির কথা জেনেও চিকিৎসকেরা আগে থেকে সতর্কতামূলক কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। ধীরে ধীরে তারা তাকে মৃত্যুর দিকে এগিয়ে দিয়েছেন।

মারাদোনার মৃত্যুর পর যে তদন্ত কমিটি গড়ে ওঠে সেখানে জানানো হয়েছে যে মারাদোনার চিকিৎসায় বহু গাফিলতি ছিল। মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল তার। এরপরই তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকে। মারাদোনার দুই কন্যার অভিযোগ, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা সত্বেও মারাদোনা মদ্যপান করতেন এবং মারিজুয়ানা ড্রাগ নিতেন। চিকিৎসকেরা কিন্তু সবটাই জানতেন। তবে তারা রোগীকে বাধা দেননি।

মারাদোনা ক্রমশ মৃত্যুর দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন জেনেও তারা আগে থেকে কোনো সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি। অগ্রিম চিকিৎসা করানো হয়নি। এই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতেই চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে প্রত্যেকেরই ৮-২৫ বছর পর্যন্ত জেল হাজত হতে পারে।