দুই স্ত্রী স্বামীকে নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নিলেন তিন দিন করে

12
দুই স্ত্রী স্বামীকে নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নিলেন তিন দিন করে

এই দুনিয়াতে কতইনা অদ্ভুত ঘটনা ঘটে। এবার প্রকাশ্যে এলো ঝাড়খণ্ডের রাঁচির এক ঘটনা। রাজেশ নামে এক ব্যক্তির 2 জন স্ত্রী বর্তমান। দুইজন স্ত্রী তার স্বামীকে দুই জনের মধ্যে সমান ভাগে ভাগ করে নিল।

এর আগে তামিলনাড়ু কোয়েম্বাটরে আরেকটি ঘটনা জনসমক্ষে আসে। মাত্র 26 বছর বয়সেই দুবার বিবাহের কাজ সেরে ফেলেছেন। তবে এখানেই শেষ নয় তিনি আরও একটি বিয়ে করার জন্য ম্যাট্রিমনিয়াল সাইট এ নিজের ছবি দিয়ে অ্যাড দিয়েছেন। তখন তিনি দুই স্ত্রীর কাছে উত্তম মধ্যম প্রহার খান।

2016 সালে তিনি প্রথম বিবাহ করেন আবার এই বছরই দ্বিতীয় বিবাহের কাজ সেরে ফেলেন। দ্বিতীয়বার আবার এক মহিলাকে বিয়ে করবার জন্য তিনি তৈরি হয়ে গেছিলেন তখন তার দুই স্ত্রী তার অফিসের সামনে এসে অনশন করে ঘটনাস্থলে পুলিশ আসতে বাধ্য হয়। পুলিশ এসে ওই দুই স্ত্রীর অনশন ভঙ্গ করে।

কিন্তু রাঁচির ঘটনায় দেখা যায় দুই স্ত্রী স্বামীকে নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নেন। তারা নিজেদের মধ্যেই ঠিক করে নেয় স্বামী কার কাছে কতদিন থাকবে। দুইজন স্ত্রীর কাছে তিন দিন করে স্বামী থাকবে তারপর তারা একদিন স্বামীকে অফ ডে হিসেবে দেন।

সময় কাটানো নিয়ে রাজেশের দুই স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই ঝামেলা লেগে থাকত। এর জন্য বিপাকে পড়তে হতো পুলিশ অফিসারদের। একদিন রাজেশের দ্বিতীয় স্ত্রী থানায় গিয়ে বলে পাঁচ দিন হয়ে গেল স্বামী আমার কাছে আসেনি কিছু একটা আপনারা করুন যাতে আমার স্বামী আমার কাছে আসে। এরপর পুলিশ অফিসাররা রাজেশকে আদেশ দেন তার দুই স্ত্রীকে নিয়ে থানায় আসার জন্য। তার দুই স্ত্রী যখন আসে তখন তারা পুলিশের সামনেই ঠিক করে নেন কার কাছে কোন দিন স্বামী থাকবে। সপ্তাহের প্রথম তিন দিন থাকবে প্রথম স্ত্রীর কাছে দ্বিতীয় স্ত্রীর কাছে থাকবে পরের তিনদিন এবং বাকি একদিন তার ছুটি বলে ঘোষণা করা হয়েছে।