বিমল গুরুংয়ের এনডিএ ছাড়ার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাল তৃণমূল

10
বিমল গুরুংয়ের এনডিএ ছাড়ার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাল তৃণমূল

বুধবার রাতে তৃণমূলের তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে, তারা বিমল গুরুংয়ের এনডিএ ছাড়া র সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন। সকলে একসঙ্গে কাজ করলে শান্তি ফিরে আসবে বলে জানিয়েছেন নেতৃত্ব।

এই দিন কলকাতায় একটি সাংবাদিক বৈঠক করে মমতা ব্যানার্জির ওপর আস্থা রাখার কথা জানিয়েছেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার বহিস্কৃত নেতা বিমল গুরুং। এর পাশাপাশি এনডিএ র বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি জোট ছাড়ার কথা ঘোষণা করেছেন।

এরপর এই বিমল গুরুংয়ের সিদ্ধান্তকে সমর্থন করে তৃণমূল নেতারা জানিয়েছেন যে,”মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে উপর সম্পূর্ণ ভরসা রেখে এনডিএ জোট ছাড়ার সিদ্ধান্ত কে আমরা সমর্থন করছি”।

এরপরই বিরোধী দল বিজেপি কে উদ্দেশ্য করে তৃণমূল দাবি করেছেন যে, বিজেপি গোর্খাল্যান্ড ইস্যুকে শুধুমাত্র রাজনীতি জন্য ব্যবহার করেছিল। তাদের এই পরিকল্পনা সকলের সামনে চলে আসে। মাতৃভূমি শান্তি রক্ষায় এবং উন্নয়ন করতে পাহাড়ের সকলের সঙ্গে আমরা একজোট হয়ে লড়বো।

এই বক্তব্য প্রকাশের পর আচমকা সল্টলেকে গোর্খা ভবনের বাইরে দেখতে পাওয়া যায় বিমল গুরুং কে। তিনি প্রকাশ্যে সাংবাদিক বৈঠক করে তার ফিরে আসার কথা ঘোষণা করেন। কিন্তু ঠিক নির্বাচনের আগে তার এইভাবে প্রত্যাবর্তন ঘিরে একাধিক প্রশ্ন উঠেছে।

বিমল গুরুংয়ের বিরুদ্ধে পুলিশ কর্মী অমিতাভ ঘোষ কে খুনের অভিযোগ রয়েছে। তার বিরুদ্ধে UAPA মামলা রুজু করা হয়েছে। এতদিন গ্রেফতার হওয়ার ভয়ে পালিয়ে বেরিয়েছেন তিনি। আচমকা তার কলকাতাতে ফিরে আসা এবং মুখ্যমন্ত্রীর হয়ে নির্বাচনের কথা বলার পেছনে গভীর অভিসন্ধি দেখতে পাচ্ছে ওয়াকিবহাল মহল।

তৃণমূলের দাবি, বিমল গুরুং গোর্খাল্যান্ডের দাবি থেকে অনেকটাই সরে এসেছেন। কিন্তু অন্যদিকে সাংবাদিক বৈঠকে তার গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে অনড় থাকার কথাই জানিয়েছেন বিমল গুরুং।