সন্তানের প্রতি যে বিষয় গুলি খুবই গুরুত্ব দেওয়া উচিৎ বাবা-মা র

7
সন্তানের প্রতি যে বিষয় গুলি খুবই গুরুত্ব দেওয়া উচিৎ বাবা-মা র

অভিভাবকদের যে ১০টি বিষয় নিজের সন্তানের প্রতি খেয়াল রাখা দরকার, সব বাবা-মা চাই তার সন্তান যেন অনেক বড় হয় এবং সুশিক্ষায় বড় হয়ে ওঠে। এর জন্য সন্তান একটু বড় হতে কোন ইংরেজি মাধ্যম স্কুলে পড়াশোনা করতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। পড়াশোনা যাতে ভালো হয় তার থেকে বেশি লক্ষ্য রাখে অভিভাবকরা। এছাড়াও অনেক অভিভাবক আছেন যারা নিজেদের সন্তানদের বড় স্কুলে পড়িয়ে ছেলেমেয়েকে ডাক্তার-ইঞ্জিনিয়ার করবার চেষ্টায় করে যায়। তাদের ভালো লাগা বিষয়গুলিকে গুরুত্ব না দিয়ে। কিছু বিষয়ের উপর লক্ষ্য রাখা উচিত নিজের সন্তানের প্রতি।

ছোটোবেলা থেকেই নিজের সন্তানের ওপর নজর রাখতে হবে। বিশেষত যৌবন কালে সন্তানের উপর নজর রাখা সব থেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কারণ সেই সময়ে ছেলে মেয়েরা বুঝতে পারেনা কোনটা ভূল আর কোনটা ঠিক। তাই সেই সময় যদি অভিভাবক নিজের সন্তানের উপর দৃষ্টি আকর্ষণ করে তাহলে তাদের সন্তানের ভবিষ্যৎ সুন্দর ভাবে পরিঘটিত হবে। এছাড়াও নিজের সন্তানকে সবসময় আলিঙ্গন করা উচিত তারফলে মা বাবার প্রতি ভালোবাসা সন্তানের দ্বিগুণ বেড়ে যায়। নিজের সন্তানের সাথে ছোটবেলার ফটো রাখা উচিত যাতে ভবিষ্যতে সন্তানের মনে না হয় তার মা-বাবা তাকে নিজের কাছে রাখতেনা। অপরদিকে পড়াশোনা দিক থেকে নয় সৃজনশীলতার দিকেও সন্তানের প্রতি নজর রাখা উচিত।

আপনার সন্তান কি করতে ভালোবাসে গান করতে, নাচ করতে সেই দিকে সজাগ থাকা উচিত। তার ফলে দেখতে পাবেন যা আপনার সন্তান অন্যান্য ছেলেদের তুলনায় অনেক বেশি রুচিশীল হয়েছে। এছাড়াও অভিবাবকদের উচিত যদি কোন ভুল করে তাহলে ভালোভাবে তাদেরকে বোঝানো কঠোরভাবে নয়। তাদের চাওয়া কেউ গুরুত্ব দিতে হবে না হলে হয়তো ভবিষ্যতে তাদের ক্ষোভ থেকে যেতে পারে বাবা মা এর প্রতি।

অন্যের উপদেশ না শোনা আপনার সন্তানকে কি করতে ভালোবাসে সেটিই করতে দিন, তার ওপর জোর করে কোন জিনিস চাপিয়ে দেবেননা। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো আপনার সন্তানের আনন্দ মুহূর্তের সময় তার পাশে থাকুন তাহলে আপনার সন্তান সেই আনন্দের মুহূর্তটাকে দ্বিগুণ ভাবে উৎযাপন করতে পারবে। এই বিষয়গুলোর ওপর লক্ষ্য রাখলে আপনার সন্তান আপনাকে যেমন ভালোবাসে এমনি সম্মান করবে।