চুরি করতে এসে পুলিশকেই ফোন করে ডেকে আনল চোর!

8
চুরি করতে এসে পুলিশকেই ফোন করে ডেকে আনল চোর!

বাড়িতে চুরি করতে আসা চোর মাঝে মাঝে ঘুমিয়ে পড়ে অথবা ফাঁকা বাড়িতে নিজের মনে করে রান্না করে ফেলে, এরকম ঘটনা আমরা সিনেমাতে অথবা বাস্তবে দেখেছি। এমনকি করোনা আক্রান্তের বাড়িতে ঢুকে চুরি করে রান্না করে খেয়ে ও চলে গেছে চোর, এমন ঘটনাও আমাদের কাছে অজানা নয়। কিন্তু চুরি করতে এসে নিজেই পুলিশ কি কখনো ফোন করে দিতে পারে চোর? তা কী করে সম্ভব? তবে এমন একটি কান্ড ঘটে গেছে সম্প্রতি ইংল্যান্ডে। ইংল্যান্ডের মিদিল্পর্ট এলাকায় ঘটলো এমনকি বিরল ঘটনা।সেখানে একে অপরকে ফোন করতে গিয়ে ভুল করে পুলিশকে ডেকে ফেলে সেই চোর।

সূত্র মারফত যা খবর পাওয়া গেছে তা অনুযায়ী, স্টাক অন রেন্ট নামে একটি জায়গায় বুধবার সন্ধ্যেবেলা চুরি করতে এসেছিল দুটি চোর। বাড়ি সম্পূর্ণ ফাঁকা থাকায় তাদের ঢুকতে কোনো অসুবিধা হয়নি। বাড়িতে ঢুকে একজন চোর আর একজনকে ফোন করার বদলে করে ফেলে পুলিশকে ফোন। ডায়াল করে ফেলে ৯৯৯। এই নম্বরটি ইংল্যান্ডের ইমার্জেন্সি পরিষেবা নম্বর।

ফোন করা মাত্রই ওই চোর বিশদে সব কথা বলতে শুরু করে দেয় আর একজন কে। উল্টোদিকে কে রয়েছে তা শোনেনি সেই চোর। এদিকে চোরের মুখে সমস্ত ঘটনা শুনে চুরির কথা বুঝতে পারে পুলিশ। তড়িঘড়ি এসে গ্রেফতার করে তাদের।

সংবাদমাধ্যমকে পুলিশ জানিয়েছেন যে, ওই দুই চোরের বয়স চল্লিশের কাছাকাছি। দুজনেই একটি বাড়িতে চুরি করতে ঢুকেছিল। তাদের একজনের সঙ্গে আরও একজনের যোগ দেওয়ার কথা ছিল সেখানেই। তাকেই ফোন করতে গিয়ে ভুল করে ইমার্জেন্সি নম্বর ডায়াল করে ফেলে একজন চোর। আর তার ফলে ঘটে যায় বিপত্তি।

স্টাফোর্ড শেয়ারের পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন যে, এমন ঘটনা আগে কখনো ঘটেনি। নিঃসন্দেহে এই দুই চোরকে বিশ্বের সব থেকে হতভাগা দুটি চোর বলা যায়। এই বিষয়ে সকলকে জানানোর জন্য একটি টুইট করেন তিনি। ক্যাপশন লিখে জানান ঘটনাটি।