গ্রন্থাগারে এবার গ্রন্থগারিক নিয়োগ করতে চলেছে রাজ্য সরকার

38
গ্রন্থাগারে এবার গ্রন্থগারিক নিয়োগ করতে চলেছে রাজ্য সরকার

খুব শীঘ্রই রাজ্য সরকার ৭৩৮ গ্রামীণ গ্রন্থাগারের জন্য গ্রন্থগারিক নিয়োগ করতে চলেছে। অগাস্ট মাসের শেষের দিকেই এই সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে এবার থেকে অর্ধেক পাঠক নিয়ে সপ্তাহে দু-দিন করে রাজ্যের সমস্ত লাইব্রেরী খোলা হবে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট বিভাগ। উল্লেখ্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তৃতীয় বার ক্ষমতায় আসার পরেই রাজ্যের একাধিক সরকারি বিভাগে শূন্যপদে নিয়োগ করার আশ্বাস দিয়েছিলেন।

রাজ্যের অর্থ দফতরও তার অনুমোদন দিয়েছে। সেই অনুযায়ী এবার রাজ্যের মাস এডুকেশন এক্সটেনশন অ্যান্ড লাইব্রেরি সার্ভিস দফতর কর্মী নিয়োগের অনুমোদন দিয়েছে। দফতরের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী জানিয়েছেন এই মুহূর্তে সংশ্লিষ্ট বিভাগে চার হাজারের কাছাকাছি শূন্যপদ রয়েছে। এরমধ্যে অর্থ দফতর থেকে ৭৩৮টি গ্রামীণ গ্রন্থাগারের জন্য নিয়োগের অনুমোদন পাওয়া গিয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

তিনি আরো জানিয়েছেন, নিয়োগ প্রক্রিয়া তে যেতে স্বচ্ছতা বজায় থাকে তার জন্য রাজ্যের প্রতিটি জেলায় লোকাল লাইব্রেরী অথরিটি কমিটি গঠন করা হবে। জেলা প্রশাসনের পদস্থ আধিকারিকদের পাশাপাশি লাইব্রেরী বিশেষজ্ঞদেরও এই কমিটির অন্তর্ভুক্ত করা হবে বলে জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে জানানো হয়েছে যে অর্থ দপ্তরের অনুমোদন পেলে আগামী দিনে বাকি শূন্যপদ গুলিতেও নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করা হবে।

সেই ২৩শে মার্চ, ২০২০ থেকে করোনার জন্য রাজ্যের সমস্ত লাইব্রেরি বন্ধ রয়েছে। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে আগামী দিনে প্রতি সপ্তাহের সোমবার এবং বুধবার রাজ্যের সমস্ত লাইব্রেরী খোলা থাকবে। যদিও আসন সংখ্যার অর্ধেক পড়ুয়াকে লাইব্রেরীতে প্রবেশ করার অনুমোদন দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।