ভ্যাকসিন উৎপাদনের জন্য সংস্থাকে জমি দিতেও রাজি রাজ্য! প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি মমতার

7
ভ্যাকসিন উৎপাদনের জন্য সংস্থাকে জমি দিতেও রাজি রাজ্য! প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি মমতার

সারা দেশের পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গেও অক্সিজেন এবং ভ্যাকসিনের আকাল দেখা দিয়েছে। ভ্যাকসিন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারবার কেন্দ্রের কাছে নিজের আবেদন জানিয়েছেন। এমনকি তৃতীয় বার মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ গ্রহণ করার পর বেশ কয়েক দফায় কেন্দ্রের কাছে চিঠি পাঠিয়েছেন মমতা। তিনি জানিয়েছেন কেন্দ্রে তরফ থেকে এ পর্যন্ত রাজ্যে যে পরিমাণ ভ্যাকসিন পাঠানো হয়েছে তা প্রয়োজনের তুলনায় অত্যন্ত কম।

সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী কাছে আরও একটি চিঠি পাঠিয়েছেন। সেই চিঠিতে ভ্যাকসিন এর আকার মেটানোর জন্য প্রয়োজনে বিদেশী সংস্থাকে দিয়ে ভ্যাকসিন উৎপাদনের পরামর্শ দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুধু তাই নয়, ভ্যাকসিন উৎপাদনের জন্য তিনি প্রয়োজনে জমি দিতেও রাজি। এমনটাই জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় সরকারকে।

বর্তমানে দেশে সংক্রমণ এবং তার ভয়াবহতা যেভাবে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে তাতে টিকাকরণ ছাড়া অন্য কোনো উপায় নেই। রাজ্যে মুহূর্তে দশ কোটি মানুষ রয়েছেন। এই দশ কোটি মানুষেরই টিকা প্রয়োজন। তবে, কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে রাজ্যের কাছে এই পর্যন্ত যে পরিমাণ টিকা পাঠানো হয়েছে তা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই কম বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে যে চিঠি পাঠিয়েছেন সেখানে তিনি লিখেছেন, “আপনার কাছে আগেও বারবার ভ্যাকসিন এবং অক্সিজেনের জন্য আবেদন জানিয়েছি। এখনো সেই একই আবেদন জানাচ্ছি। করোনা পরিস্থিতির মোকাবিলার জন্য রাজ্য অবিলম্বে অক্সিজেন এবং টিকা পাঠান।” পাশাপাশি করোনা চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর উপর শুল্ক ছাড় দেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।