প্রধানের আত্মীয়রা ঘর পেলেও পায়নি গ্রামের হত দরিদ্ররা! ফের তৃণমূলের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ

6
প্রধানের আত্মীয়রা ঘর পেলেও পায়নি গ্রামের হত দরিদ্ররা! ফের তৃণমূলের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ

ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে একাধিক বার পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ উঠেছে বিরোধীদের কাছ থেকে। ভ্যাকসিন থেকে শুরু করে ত্রান বিলি, সর্বক্ষেত্রে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ উঠেছে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে। এরই মধ্যে আরও একবার আবার ইন্দিরা যোজনার ঘর বন্টন নিয়ে তৃণমূল পরিচালিত পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে উঠল গুরুতর অভিযোগ।

বিরোধীরা অভিযোগ করেছেন যে, পঞ্চায়েত প্রধানের এক ডজনের বেশি আত্মীয় ইন্দিরা আবাস যোজনার মাধ্যমে ঘর পেয়ে গেছে। একই জায়গায় দাঁড়িয়ে গ্রামের যোগ্য প্রাপকরা এখনো ঘর পাইনি। মুর্শিদাবাদের ভরতপুর 1 নম্বর ব্লকের সিজগ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধানের বিরুদ্ধে উঠেছে এই রকম গুরুতর অভিযোগ। গ্রামের একাধিক ব্যক্তি এখনো পর্যন্ত ঘরবাড়ি নেই উলটে প্রধানের একাধিক আত্মীয় পেয়ে গেছেন ঘর।

স্থানীয় সূত্র অনুযায়ী, পঞ্চায়েত প্রধান নিজেদের পরিবার এবং আত্মীয় মিলিয়ে মোট 16 জনকে ইন্দিরা আবাস যোজনার মাধ্যমে ঘর বানিয়ে দিয়েছেন। কিন্তু যে সমস্ত গরীব মানুষেরা মাথায় ছাদ না থাকার জন্য প্রত্যেক দিন কষ্ট পাচ্ছেন তাদের রাখা হয়েছে এই তালিকার বাইরে। বহুবার গ্রাম পঞ্চায়েতের বিরুদ্ধে সরব হয়ে কোন লাভ হয়নি। অবশেষে জেলাশাসক এবং মহকুমা শাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ জানায় স্থানীয়রা। মুখ্যমন্ত্রীর কাছে ন্যায় বিচার চেয়ে সরব হয়েছেন তারা।

যদিও ইতিমধ্যেই পঞ্চায়েতের প্রধান রস্মিনা বিবি এবং তার স্বামী সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে দিয়েছেন। উল্টে তারা অভিযোগকারীদের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ করে বলেছেন, যারা এই সমস্ত অভিযোগ করেছেন তারাই আসলে তোলাবাজ। আমরা কোন তালিকা তৈরি করিনি। সরকারি কর্মীরা সমস্ত তালিকা তৈরি করেছেন সেই অনুযায়ী আমরা কাজ করছি। এছাড়া এই বিষয় নিয়ে কোন কথা বলতে পারব না আমরা।