ছাঁটাই শুরু করল রেল, বাড়ছে করোনার ঝুঁকি

49
ছাঁটাই শুরু করল রেল, বাড়ছে করোনার ঝুঁকি

গোটা দেশ জুড়েই ইতিমধ্যে জারি হয়েছে লকডাউন এবং কোয়ারেনটাইন। তার কারণ হল কোভিড-১৯ নামক একটি মারণ ভাইরাস গোটা দেশ জুড়েই আপাতত থাবা বসিয়েছে। ইতিমধ্যেই জানা গিয়েছে, ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৯ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। তবে এর মধ্যে একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য পাওয়া গেলো যাতে সাধারণ মানুষজন যথেষ্ট ওয়াকিবহাল হতে পারবে ভবিষ্যতে আশা করা যায়।

প্রসঙ্গত, বয়স যে সমস্ত ব্যক্তির ষাট পেরিয়েছে সমীক্ষা বলছে তাঁদের করোনাভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা সবথেকে বেশি। আর এই পরিস্থিতিতে ভারতীয় রেল কর্তৃপক্ষ এক উল্লেখযোগ্য সিদ্ধান্ত গ্রহণ করল। বেছে বেছে এবার কর্মীদের ছাঁটাই শুরু করেছে ভারতীয় রেল কর্তৃপক্ষ। অবসরের বয়স পেরিয়েছিল তাঁদের মধ্যে অনেকেরই তবু তাঁদের পুনর্বহাল করা হয়েছিল। কিন্তু এরই মধ্যে করোনার জন্য উদ্বেগজনক পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে গোটা দেশে। আর এবার তাই দক্ষিণ-পূর্ব রেলের ৯১ জন কর্মীকে ছাঁটাই করল রেল।

জানা গিয়েছে, সবকিছুর মধ্যে সবথেকে মর্মান্তিক পদক্ষেপ হল রেল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে এই ৯১ জন্যে ব্যক্তির কাছে কোনোরকম নোটিশ বা চিঠি পাঠানো হয়নি ছাঁটাই করার আগে। শুধুমাত্র কোনো কর্মীকে হোয়াটস অ্যাপে তো কাউকে আবার রেলের তরফ থেকে সাধারণ ফোন মেসেজ ডেলিভারি করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে তাঁদের আর কর্মস্থলে আসতে হবে না। তবে অভিযোগ, ৮৯ জন নন-গেজেটেড ও দুজন গেজেটেড স্তরের কর্মীকে এভাবে সরিয়ে দেওয়ায় প্রশ্নের সম্মুখীন হয়েছৈ রেল কর্তৃপক্ষ।

মাত্র ১৫ দিনের নোটিসেই এই কর্মীদের বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। তবে সবথেকে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল এই ৯১ জন কর্মীর নাকি করোনাতে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তবে রেলের তরফ থেকে সঙ্গে সঙ্গে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ওই কর্মীদের অফিসে কাজ বলতে তেমন কিছুই ছিল না।