ভবিষ্যৎ সেভিংসের ক্ষেত্রে ‌গ্রাহকদের নতুন পথ দেখাচ্ছে পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড স্কিম

47
ভবিষ্যৎ সেভিংসের ক্ষেত্রে ‌গ্রাহকদের নতুন পথ দেখাচ্ছে পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড স্কিম

বর্তমান সময়ে অনেকেই স্মল সেভিংসের ক্ষেত্রে সবথেকে বেশি লাভ দায়ক স্কিমের সন্ধানে রয়েছেন। যেখানে তাদের টাকাটাও সুরক্ষিত থাকবে আবার গচ্ছিত টাকার উপর ভালো সুদ পাওয়া যাবে। সাধারণ মানুষের সেই চাহিদা বিবেচনায় করে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে একাধিক স্কিমের ব্যবস্থা করা রয়েছে। যদি কেউ ন্যূনতম বিনিয়োগ করে ভবিষ্যতে বড় অংকের রিটার্ন পেতে চান তাহলে তাদের জন্য কেন্দ্রের একাধিক প্রকল্পের মধ্যে অন্যতম হলো পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড স্কিম।

পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড বা পিপিএফ স্মল সেভিংসের ক্ষেত্রে ‌ গ্রাহকদের নতুন পথ দেখাচ্ছে। এই ফান্ডে যদি কেউ প্রতি মাসে ন্যূনতম ৫০০ টাকা বিনিয়োগ করেন তাহলে ভবিষ্যতে মোটা অংকের বিনিয়োগের অর্থ ফেরত পাবেন তারা। একই সঙ্গে থাকছে মোটা অংকের সুদ যা তাদের ভবিষ্যৎকে সুরক্ষিত করে। পঞ্জাব ন্যাশন্যাল ব্যাঙ্কে পিপিএফ অ্যাকাউন্ট (Punjab National Bank PPF Account) খুললে বেশ আকর্ষণীয় সুদ পাওয়া যায়। এই বিনিয়োগের উপর আয়করও চাপানো হয় না।

পি পি এফ এর অন্য সমস্ত ফান্ড থেকে এই ফান্ডের সবথেকে বেশি সুদ পাওয়া যায়। সম্প্রতি পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক এর তরফ থেকে এই মর্মে একটি নির্দেশিকা প্রকাশ করা হয়েছে তাদের টুইট মাধ্যমে। এই অ্যাকাউন্টে এক বছরে সর্বাধিক ১.৫ লক্ষ টাকা এবং মাসে সর্বাধিক ১২,৫০০ টাকা বিনিয়োগ করতে পারবেন আপনি। এর ম্যাচিউরিটির সময়সীমা রয়েছে ১৫ বছর। গ্রাহক চাইলে এর পরেও ৫ বছর করে দুই দফায় ১০ বছরের জন্য পুনরায় বিনিয়োগ করতে পারেন।

এফডির থেকেও বেশি লাভ দায়ক হলো পিপিএফ ফান্ড। PPF অ্যাকাউন্ট খুললে আকর্ষক রিটার্নের সঙ্গে সঙ্গে ট্যাক্সে ছাড়ের ব্যবস্থাও রয়েছে। এই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে হলে https://www.pnbindia.in/public-provident-fund.html এই লিঙ্কে ভিজিট করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। যে কেউ এই প্রকল্পের আওতায় একাউন্ট খুলতে পারেন। তবে নাবালকদের জন্য অ্যাকাউন্ট খুলতে হলে তাদের অভিভাবকেরা নিজেদের নামে অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন।