শিক্ষক বদলির প্রক্রিয়ায় কমলো জটিলতা, থাকছে না এসএসসি ও জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শকের ভুমিকা

14
শিক্ষক বদলির প্রক্রিয়ায় কমলো জটিলতা, থাকছে না এসএসসি ও জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শকের ভুমিকা

রাজ্যের তরফ থেকে আগেই জানানো হয়েছিল, শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বহুদিনের সমস্যা দূর করতে তাদের বদলির প্রক্রিয়া দ্রুততার সম্পন্ন করা হবে। এবার সেই প্রক্রিয়া আরো সহজ সাধ্য করে তুললো রাজ্য সরকার। শিক্ষকদের প্রক্রিয়াতে এবার আর স্কুল সার্ভিস কমিশন এবং জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শকের দফতরের কোনও ভূমিকা থাকছে না। তার বদলে কমিশনার অব স্কুল এডুকেশনের কাছে আবেদন করলেই হবে।

উল্লেখ্য, শিক্ষকদের বদলির প্রক্রিয়ায় দ্রুত গতি আনতে আবেদন পত্র পাওয়া থেকে শুরু করে নতুন স্কুলের নিয়োগ পত্র পাওয়া অব্দি প্রক্রিয়ার মধ্য থেকে দুটি স্তরের বিলোপ ঘটানো হয়েছে। স্কুলশিক্ষা দফতরের তরফ থেকে প্রকাশিত একটি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হলো, সাধারণ বদলি, আপস-বদলি, বিশেষ বদলি-সহ যাবতীয় বদলির ক্ষেত্রে এবার থেকে শুধু কমিশনার অব স্কুল এডুকেশনের কাছেই আবেদন করতে হবে।

সেখানে আবেদনকারীর সমস্ত ডিটেইলস খতিয়ে দেখে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের কাছে পাঠানোর নিদান দেওয়া হয়েছে। পর্ষদের কাজ হবে শুধু নিয়োগপত্র প্রদান করা। এতদিন জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শক ও শিক্ষা দফতরের সঙ্গে যোগাযোগ করে বদলির নিয়োগপত্র প্রদান করতো মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। এর ফলে সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হতে শিক্ষকদের বহু বছর অপেক্ষা করতে হতো।

এই নিয়ে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের মনে দীর্ঘদিন ধরেই বিক্ষোভের সঞ্চার হচ্ছিল। সম্প্রতি শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, শিক্ষকদের বদলি প্রক্রিয়াতে দেরি হওয়া সংক্রান্ত বহু অভিযোগ আসছে। এই সমস্যা সমাধানে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। সুত্রের খবর, বর্তমানে স্কুল শিক্ষা কমিশনের কোনো স্থায়ী চেয়ারম্যান নেই। পাশাপাশি শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত বিভিন্ন কাজে ব্যস্ত আছে কমিশন। তাই বদলি প্রক্রিয়া সংক্রান্ত কাজ থেকে আপাতত বাদ দেওয়া হলো এসএসসিকে।