স্ত্রীকে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলিয়ে মারার অভিযোগ পুলিশকর্মী স্বামীর বিরুদ্ধে

6
স্ত্রীকে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলিয়ে মারার অভিযোগ পুলিশকর্মী স্বামীর বিরুদ্ধে

মালদা,৫ আগস্ট : আম বাগান থেকে এক গৃহবধুর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারের ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়লো মালদা জেলার মালদা থানার খনিবাথান এলাকায়। অবৈধ সম্পর্কে জড়িত থাকার সন্দেহে স্ত্রীকে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলিয়ে মারার অভিযোগ পুলিশকর্মী স্বামীর বিরুদ্ধে। পুলিশ মৃত উদ্ধার করে ময়নাতন্ত্রের জন্য মর্গে পাঠায়। বাড়ি থেকে ৫০০ মিটার দূরে একটি আমবাগান থেকে ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, গত সাত বছর আগে জয়ন্ত মণ্ডলের সঙ্গে বিয়ে হয় পুরাতন মালদার পোপরা এলাকার বাসিন্দা ওই যুবতীর।
পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত গৃহবধুর নাম মাম্পি মন্ডল (২৪)। শশুর বাড়ি মালদা থানার খনিবাথান এলাকায়।
অভিযুক্ত স্বামী জয়ন্ত মন্ডল। পেশায় তিনি পুলিশ কর্মী।

মৃত মাম্পি মন্ডলের দিদি রিঙ্কি মন্ডল এর অভিযোগ, মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ফিরে প্রতিনিয়ত শারীরিক অত্যাচার চালাতো তার বোনের উপর। গত সাত বছর আগে জয়ন্ত মণ্ডলের সঙ্গে বিয়ে হয় মাম্পি মন্ডলের। তাদের দুটি পুত্র সন্তান রয়েছে।
তার অভিযোগ পরকীয়ার সন্দেহে স্ত্রীকে ফাঁস ঝুলিয়ে খুন করে তার স্বামী।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায়,মালদা থানার পুলিশ। তারা দেখেন একটি আম গাছের ডালে শাড়ি বাধা রয়েছে। গলায় ফাঁস জড়ানো মৃতদেহটি মাটিতে বসা অবস্থায় রয়েছে। এমন দৃশ্য দেখে মৃতার আত্মীয় এবং পরিজনদের সন্দেহ গলায় ফাঁস জরিয়ে খুন করা হয়েছে ওই গৃহবধূকে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতন্ত্রের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করে পুলিশ। ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে অভিযুক্ত স্বামীকে।