পরিবারের সাথে ঝগড়া করে হাঁটতে হাঁটতে সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে চলে এলো পাকিস্তানি কিশোর

15
পরিবারের সাথে ঝগড়া করে হাঁটতে হাঁটতে সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে চলে এলো পাকিস্তানি কিশোর

সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশকারীদের সংখ্যাটা কিছু কম নয়। এই অনুপ্রবেশকারীদের মধ্যে অনেকেরই অনেক রকমের উদ্দেশ্য থেকে থাকে। তাই অনুপ্রবেশ রুখতে সীমান্তে ভারতীয় সৈন্যরা সর্বদা তৎপর থাকেন। তবে সম্প্রতি ভারতীয় সৈন্য বাহিনীর নজর এড়িয়ে পাকিস্তান থেকে ভারতের সীমান্তে চলে এলো এক অনুপ্রবেশকারী। তবে কোনরূপ অসৎ উদ্দেশ্যে নয়, পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ঝগড়া করে ঘর পরিবার এমনকি দেশত্যাগ করে ভারতে চলে এসেছে ১৫ বছর বয়সি এক কিশোর!

গুজরাট সীমান্তের এই ঘটনায় স্বভাবতই তাজ্জব হয়েছেন বিএসএফ জওয়ানরা। রবিবার গুজরাটের কচ্ছ জেলার খাবড়া এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ওই কিশোরকে। তার বাড়ি পাকিস্তানের থারপারকার জেলার সিন্ধ শাহিচকে। তাকে জেরা করে জানা গিয়েছে ওই দিন সকালে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে তার তুমুল ঝগড়া হয়। এর পরেই সে বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে আসে।

হাঁটতে হাঁটতে কখন যে ১০৯৯ নম্বর বর্ডার পিলার পেরিয়ে ভারতে চলে এসেছে সে, তা বুঝতেও পারেনি ওই কিশোর। তবে শেষমেষ সে ধরা পড়ে যায় ভারতীয় সেনাবাহিনীর হাতে। বিএসএফ জওয়ানরা মুহূর্তের মধ্যেই তাকে গ্রেপ্তার করে নেন। এরপর তাকে জিজ্ঞাসা করে সম্পূর্ণ ঘটনাটি তারা জেনে নেন। কমিউনিটি হেলথ সেন্টারে তার মেডিক্যাল পরীক্ষা করানো হয়। এরপর তাকে খাবড়া পুলিশ স্টেশনে নিয়ে গিয়ে আধিকারিকদের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

আপাতত ওই যুবক বিএসএফ আধিকারিকদের তত্ত্বাবধানে রয়েছে। তাকে আবার পাকিস্তানে ফিরিয়ে দেওয়া হবে কিনা তা অবশ্য এখনও স্পষ্ট করে কিছু জানাননি বিএসএফ সেনা আধিকারিকেরা। বিএসএফ এর তরফ থেকে একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের কাছে এই খবরের সত্যতা স্বীকার করে নেওয়া হয়েছে।