পরিচারিকা মেয়েকে নিজের মেয়ের মতো করে বিয়ে দিলেন মালিক

8
পরিচারিকা মেয়েকে নিজের মেয়ের মতো করে বিয়ে দিলেন মালিক

মাঝেমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়াতে এমন কিছু খবর ভাইরাল হয় যা কার্যত মানবতা সম্পর্কে শিক্ষা দিয়ে যায়। এই যেমন সম্প্রতি একটি বিয়ের ঘটনার কথা জেনে ভীষণ খুশি হয়েছেন নেটিজেনরা। তেরো বছর আগে একটি বাড়িতে পরিচারিকা হিসেবে এসেছিল একটি মেয়ে। তবে তাকে নিজের মেয়ের মতোই বড় করেছেন বাড়ির সদস্যরা।

এই মেয়েটিকে শুধু মেয়ের মত মানুষ করা নয় তাকে মহা ধুমধাম করে বিয়েও দিয়েছে ওই পরিবার। বাড়ির সকলে মিলে আয়োজন করে বিয়ে দেওয়া হলো গুড়িয়া নামের ওই মেয়েটির। ১৩ বছর আগে সুনীল সিং এর বাড়িতে পরিচারিকা হিসেবে এসেছিল সে। সেই বাড়ি থেকে তিনি বিদায় নিলেন কনের সাজে।

মহা ধুমধাম করে গুড়িয়ার বিয়ের আয়োজন করেছিল ওই পরিবার। গোটা বাড়িহ মন্ডপ এবং পাড়া সাজানো হয়েছিল আলোর মালায়। ছয় কিংবা সাত বছর বয়সে মেয়েটিকে বাড়ির পরিচারিকা হিসেবে আনা হয়। তার বাবা ছিলেন বেকার এবং গুড়িয়া ও তার ছোট ভাই বোনদের তিনি মারধর করতেন।

এরপর একেবারে বাড়ির মেয়ের মতো গুড়িয়া সকলের দেখাশোনা করতে থাকে। সে ছিল অত্যন্ত বিশ্বাসী এবং কর্মঠ। গৃহস্বালির কাজকর্মে নিপুনা। বাড়ির মেয়ে হয়ে ওঠে গুড়িয়া। এরপর সে বড় হলে তাকে পাত্রস্থ করল ওই পরিবার।

 গুড়িয়া ঘরে ঘরে কাজ শুরু করে৷ সেখান থেকে সুনীল সিংয়ের সাথে দেখা হয় তার এবং তাকে সুনীল নিজের বাড়িতে নিয়ে আসেন৷ সকলের মন জয় করে নেন গুড়িয়া। সুনীল সিং বলেছেন যে গুড়িয়া এতটাই ভাল যে আমাদের সকলের খেয়াল রেখেছিল বাড়ির মেয়ের মতোই৷