বাড়ছে ওয়েটিং লিস্টের যাত্রী সংখ্যা! ট্রেন সংখ্যা বাড়ানোর কথা ভাবছে রেল কর্তৃপক্ষ

8
বাড়ছে ওয়েটিং লিস্টের যাত্রী সংখ্যা! ট্রেন সংখ্যা বাড়ানোর কথা ভাবছে রেল কর্তৃপক্ষ

করোনাকালে যাত্রী সংখ্যার অভাবজনিত কারণে দূরপাল্লার বেশকিছু ট্রেনের যাতায়াত বন্ধ করে দিয়েছিল পূর্ব রেল কর্তৃপক্ষ। তবে করোনা পরিস্থিতি একটু স্বাভাবিক হতেই দূরপাল্লার ট্রেনের যাত্রী সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। সেই দিক বিবেচনা করে আবারও দূরপাল্লার ট্রেনে যাতায়াত শুরু করার কথা ভাবছে রেল কর্তৃপক্ষ। দিল্লি, পাঞ্জাব ও মুম্বইগামী যে ট্রেনগুলি চলছে, তার ওয়েটিং লিস্টের যাত্রী সংখ্যা বাড়ছে। পরিস্থিতি বিবেচনা করে তাই জুনের মাঝামাঝি সময় থেকেই দূরপাল্লার দশটি ট্রেনের যাতায়াত শুরু করার কথা ভাবছে রেল।

সম্প্রতি পূর্ব রেলের তরফ থেকে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, পূর্বা এক্সপ্রেস, কালকা মেলে এখন ১০০ শতাংশ যাত্রী হচ্ছে। ওয়েটিং লিস্টে যাত্রী সংখ্যা বাড়ছে অর্থাৎ এই ট্রেন গুলির চাহিদা বাড়ছে। রাজধানী এক্সপ্রেসে ৩০ শতাংশ যাত্রীর চাহিদা রয়েছে। আসলে ভাড়া কম হওয়ার জন্যেই যাত্রীরা কার্যত কম ভাড়া ট্রেন গুলির প্রতি ঝুঁকছেন। তাই যাত্রী চাহিদা বিবেচনা করে সেই অনুসারেই ট্রেন চলাচল শুরু করার কথা ভাবছে রেল কর্তৃপক্ষ।

তবে ট্রেন চলাচলের ক্ষেত্রে কঠোর করোনা সতর্কতা বিধি মেনে চলবে রেল কর্তৃপক্ষ। আরটি-পিসিআর রিপোর্ট-সহ যাত্রা করার নির্দেশ দিয়েছে যে রাজ্যগুলি, সেখানে সেই নিয়ম পালন করা হবে বলে জানানো হয়েছে। তবে কোন রুটে কতগুলো ট্রেন চলবে তা নিয়ে অবশ্য এখনও স্পষ্ট করে কিছু জানানো হয়নি।

প্রসঙ্গত করোনার দ্বিতীয় ঢেউ যখন ভারতে আছে পড়ে তখন ৫০টিরও বেশি ট্রেন সাময়িকভাবে বাতিল করে দেয় রেল কর্তৃপক্ষ। দূরপাল্লাগামী বেশকিছু ট্রেনের যাতায়াত সম্পূর্ণরূপে বন্ধ হয়ে যায়। যে কারণে যাত্রীরা এতদিন প্রবল সমস্যার মুখে পড়েছেন। জুন মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে যদি দূরপাল্লার ট্রেনগুলি ফের চালু করা হয় তাহলে যাত্রীদের সুবিধাই হবে।