পাঁচ বছর আগে হারিয়ে যাওয়া নাকের নোলক মিলল ওই ব্যক্তিরই ফুসফুসে

5
পাঁচ বছর আগে হারিয়ে যাওয়া নাকের নোলক মিলল ওই ব্যক্তিরই ফুসফুসে

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় যে উন্মাদনা ছড়ানো ঘটনার সাক্ষী থেকেছি আমরা তা যে কোন ফেলুদা, শার্লক হোমস বা সত্যান্বেষী ব্যোমকেশের রহস্য উদঘাটনের থেকে কম কিছু ব্যাপার নয়। এমনকি এই ঘটনায় তাজ্জব হয়ে রয়েছেন স্বয়ং চিকিৎসকেরাও। তাঁরাও সঠিকভাবে কারণ অন্বেষণ করতে অক্ষম হয়ে পড়েছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে আমেরিকার ওহায়োরতে। সেখানকার বছর পঁয়ত্রিশের এক যুবক যার নাম জোয়ি লাইকিন। আজ থেকে বছর পাঁচেক আগে হঠাৎই তার হারিয়ে যাওয়া নাকের নোলকের পর্দা ফাঁস হয়েছে আজ। সেটি পাওয়া গিয়েছে ওই ব্যক্তিরই ফুসফুসে। যদিও তা বছর চারেক ধরে তাঁর ফুসফুসেই অবস্থান করছিল কিন্তু তিনি নিজেও টের পাননি তা। বেশ কিছুদিন আগে আচমকা একদিন রাত্রে প্রবল কাশিতে নাস্তানাবুদ হয়ে পড়েন তিনি এবং শুধু তাই নয় শ্বাস-প্রশ্বাসেও কষ্ট হচ্ছিল তাঁর।

দ্রুত তিনি চিকিৎসকের কাছে যান এবং চিকিৎসকেরা তাঁকে দেখে অনুমান করেন যে তাঁর নিউমোনিয়া হয়েছে । সেই অনুযায়ী তাঁর রুটিন মাফিক ফুসফুসের এক্স রে হতে থাকে আর তাতেই ধরা পড়ে যায় এই চরম সত্যটি। দেখা যায় তাঁর বাঁ ফুসফুসে আটকে রয়েছে ঘোড়ার খুরের মতো কিছু একটা বস্তু এবং জোয়ি তা দেখেই আঁতকে ওঠেন। তিনি বলেন এই সেই তাঁর হারিয়ে যাওয়া নাকের নোলকটি। যেটি আজ থেকে বছর পাঁচেক আগে শখ করে কিনেছিলেন তিনি এবং আচমকাই একদিন ভোরবেলা উঠে দেখেছিলেন তাঁর গয়নাটি তাঁর নিজের স্থানে নেই। শত খোঁজাখুঁজির পরও তিনি তা খুঁজে পাননি। তাই আজ এতদিন পর নিজের সেই সখের জিনিসটি ফিরে পেয়ে তিনি যথেষ্টই উচ্ছসিত।